কলকাতা: সারদাকাণ্ডে রাজীব কুমারের মামলায় সিবিআই তদন্তে গড়িমসি করেছে, এইএরকমই অভিযোগ এনে ক্ষোভ উগরে দিলেন রাজীব কুমারের আইনজীবী মিলন মুখোপাধ্যায়। আগামীকাল ফের মামলার শুনানি বিচারপতি মধুমতি মৈত্রের এজলাসে।

বুধবার কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের মামলায় সিবিআই তদন্ত নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তার আইনজীবী মিলন মুখোপাধ্যায় তিনি অভিযোগ করেন সিটের তদন্তের যাবতীয় রিপোর্ট তৎকালীন মুখ্য সচিব রাজ্য পুলিশের ডিজি এবং কলকাতার পুলিশ কমিশনার কে প্রতিদিন রিপোর্ট জমা দিতেন তাহলে কেন তাকে বারবার এইভাবে হেনস্তা করছে সিবিআই।

তিনি আদালতের কাছে আবেদন জানান দেলেতে রাজীব কুমার কে যে জেরা করা হয়েছিল সিবিআর পক্ষ থেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল সেই ভিডিওগ্রাফি টা প্রকাশ করা হোক রাজীবের আইনজীবী দাবি করেন সিবিআই যে সমস্ত প্রশ্ন রাজীব কুমার কে করেছিলেন তার যথাযথ উত্তর রাজীব কুমার দিয়েছিল তাহলে কেন তাকে বারবার সিবিআই হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের প্রশ্ন উঠছে।

সারদাকাণ্ডে ২০১৩ সালে গ্রেপ্তার হয়েছেন সারদা-কর্তা সুদীপ্ত সেন এবং দেবযানী মুখোপাধ্যায়। ২০১৪ সালে নিম্ন আদালতের নির্দেশে দেবযানী মুখোপাধ্যাইয়ের কাছ থেকে বাজেয়াপ্ত করা দুটি মোবাইল। তবে ফোন ফেরত দিয়ে দেওয়া হয় দেবযানী মুখোপাধ্যায় কে। সুদীপ্ত সেন এর কাছ থেকে যে তিনটি মোবাইল ফোন উদ্ধার হয়েছিল তা বিধান নগর ইলেকট্রনিক্স কমপ্লেক্স থানায় আজও জমা পড়ে রয়েছে। চলতি বছরের মে মাসে সেই তিনটি মোবাইল ফোন নিজেদের হেফাজতে পেটে সিবিআই আবেদন জানায়।