মেক্সিকো সিটি: করোনার জেরে মেক্সিকোয় বাড়ল মৃত্যু সংখ্যা। রবিবার মৃত্যু সংখ্যা পেরিয়ে গেল ৩৫ হাজার। যার জেরে ইতালিকে টপকে বিশ্বে চতুর্থ স্থানে চলে এল মেক্সিকো। সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের তথ্য অনুসারে এই খবর জানা গিয়েছে।

তবে রাষ্ট্রপতি অ্যান্ড্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাডর রবিবার জানিয়েছে, মহামারি মেক্সিকোতে ক্রমশ “তীব্রতা হারাচ্ছে”। এমনকি করোনা নিয়ে সতর্কীকরণের জন্য তিনি সংবামাধ্যমের ওপরেও তোপ দেগেছেন।

শুধুমাত্র রবিবারেই করোনায় মৃত্যু হয়েছে ২৭৬ জনের। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ৪৮২ জন। এরফলে মেক্সিকোতে মোট মৃত্যু হল ৩৫ হাজার ৬ জনের। মোট আক্রান্ত হয়েছেন ২ লক্ষ ৯৯ হাজার ৭৫০ জন।

একদিকে ইতালিতে যখন ভাইরাসের প্রকোপ কিছুটা কমেছে, তখন মেক্সিকোতে তেমন কোনও লক্ষণই চোখে পড়ছে না। তবুও মেক্সিকোতে সরকার এক প্রকার বাধ্য হয়ে লকডাউন কিছুটা শিথিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল, তবে এখন তা কতটা কার্যকর হবে তা নিয়ে আশঙ্কা রয়েছে।

সে দেশের রাষ্ট্রপতি জানিয়েছেন, আগের সপ্তাহে তিনি দেশের করোনা সম্পর্কিত সকল খোঁজ নিয়েছেন এবং প্রকোপ কমার ক্ষেত্রে তিনি যে আশাবাদী সে কথা জানাতেও ভোলেননি। একটি ভিডিও মেসেজে তিনি জানিয়েছেন, দেশের রিপোর্ট ইতিবাচক। তাঁর দাবি মহামারি হ্রাস পাচ্ছে এবং তীব্রতা হারাচ্ছে।

উল্লেখ্য, একটি সূত্র দাবি করেছে মেক্সিকোতে করোনা পরীক্ষায় যথেষ্ট ঘাটতি থাকার দরুণ প্রকৃত মৃতের সংখ্যা সামনে আসছে না। তবে শেষকৃত্যের পরিসংখ্যান অনুযায়ী রয়টার্সের রিপোর্ট দ্বিগুণের চেয়েও বেশি মৃত্যুর ইঙ্গিত দিচ্ছে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ