কলকাতা: মিটু মুভমেন্ট নিয়ে বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির ভূমিকায় ভীষণ ক্ষুব্ধ অভিনেত্রী রূপাঞ্জনা মিত্র৷ কলকাতা 24×7 -এর স্টুডিও-তে এসে টলিউডের উপর একরাশ ক্ষোভ উগড়ে দিলেন তিনি৷

সম্প্রতি পরিচালক অরিন্দম শীলের বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করেছেন রূপাঞ্জনা মিত্র। তাঁর অভিযোগ, ইস্টার্ন বাইপাসের কাছে অফিসে স্ক্রিপ্ট পড়ে শোনানোর অছিলায় তাঁর মাথায়-পিঠে হাত বুলিয়েছিলেন অরিন্দম। ঘনিষ্ঠ আলিঙ্গনের মাধ্যমে তাঁকে কদর্য ইঙ্গিত দিয়েছিলেন বলেও দাবি করেছেন রূপাঞ্জনা৷ তিনি এও বলেছেন যে, অরিন্দম শীল একটি অত্যন্ত বদমাশ, বদ লোক। ওঁর মুখোশ খোলার সময় এসে গিয়েছে। তিনি আগেও আর এক অভিনেত্রীর সঙ্গে এমনটা করেছেন।

রূপাঞ্জনার এই মন্তব্যের পর টলিউডের অনেকেরই প্রশ্ন, এতদিন পরে কেন এব্যাপারে মুখ খুললেন তিনি? হলিউড-বলিউডে মিটু মুভমেন্টের সময় কেন কিছু বললেন না?

দেরিতে মুখ খোলার ব্যাখাও দিয়েছেন রূপাঞ্জনা৷ তিনি বলেছেন, “যে চ্যানেলে ‘ভূমিকন্যা’ সম্প্রচারিত হত সেই চ্যানেলের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ ছিলেন তিনি। যাতে চ্যানেলের ইমেজের কোনও ক্ষতি না হয় সে জন্যই এত দিন চুপ ছিলেন।” কলকাতা 24×7 -এর স্টুডিও-তে এসে বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিকে একহাত নিয়েছেন রূপাঞ্জনা৷ তিনি বললেন, “টলিউড ইজ নট সাউথ৷ আওয়ার টলিউট স্ট্যান্ডস অন হিপোক্রেসি৷ টলিউড ন্যাকা সাজছে৷ টলিউডের এর আগে মি টু কেস হয়নি? অনেক নন-ট্যালেন্ডেড অ্যাক্টররা করে খাচ্ছে৷ কিভাবে করে খাচ্ছে, সেটা কি কেউ বোঝে না? আমরা সবাই সবার ব্যাপারে জানি৷ অনেকেই আছে চোখ চোখ রেখে কথা বলতে পারে না৷এক-একজন তো ক্রিমিনাল ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে উঠে এসে এমপি হয়ে গিয়েছে৷ বাংলা ফিল্ম যদি ন্যাকা সাজে তাহলে বলব তাদের মেরুদণ্ডটা ভেঙে ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে৷ এবার তাদের মেরুদণ্ড সোজা করে দাঁড়ানোর সময় এসে গিয়েছে৷”

রূপাঞ্জনার দাবি, অরিন্দম শীলের ব্যাপারে তিনি সরব হতেই অনেকে তাঁকে ফোন করে সমর্থন জানিয়েছেন৷ এমনকি তাঁর মতো, অশালীন আচরণের সম্মুখীন হওয়া অনেক জুনিয়র অভিনেত্রীরাও তাঁর সঙ্গে নিজেদের সমস্যার কথা শেয়ার করেছেন৷

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা