বার্সেলোনা: কাতালোনিয়া প্রদেশের স্বাধীনতা আন্দোলন ব্যাপকহারে হিংসার চেহারা নেওয়ায় লা-লিগা কর্তৃপক্ষকে স্থগিত রাখতে রয়েছে মরশুমের প্রথম এল ক্লাসিকো। পরিবর্ত দিন চূড়ান্ত নয় এখনও। এরইমধ্যে আইবারের মাঠে শনিবার চলতি লা-লিগার নবম ম্যাচে মাঠে নেমেছিলেন মেসি অ্যান্ড কোং। আইবারের বিরুদ্ধে অ্যাওয়ে ম্যাচে প্রথমবার বার্সেলোনার হয়ে স্কোরশিটে নাম তুললেন এমএসজি। মেসি-সুয়ারেজ-গ্রিজম্যান, আপফ্রন্টে এই ত্রয়ীকে আদর করে এখন ‘এমএসজি’ নামেই ডাকছেন অনুরাগীরা।

আর আদরের এমএসজি’র গোলেই আইবারকে ৩-০ গোলে হারিয়ে লা-লিগার শীর্ষে উঠে এল বার্সেলোনা। রিয়াল মালোর্কার কাছে রিয়াল মাদ্রিদের অপ্রত্যাশিত হারে চলতি লা-লিগায় প্রথমবার শীর্ষস্থান স্থায়ী হল কাতালান ক্লাবটির জন্য। মরশুমের শুরুতে চোটের কারণে আপফ্রন্টে ত্রিফলাকে একত্রে হাতে পাওয়ার সুযোগ হচ্ছিল না বার্সা কোচ আর্নেস্তো ভালভের্দের। এরপরেও সীমিত যা সুযোগ মিলেছিল তাতে দানা বাঁধেনি আর্জেন্তাইন-উরুগুয়ে এবং ফরাসি স্ট্রাইকার জুটির রসায়ন। অবশেষে লা-লিগার নবম ম্যাচে এসে স্কোরশিটে নাম তুললেন বার্সা আপফ্রন্টে তিন তারকা ফুটবলার।

এদিন ১৩ মিনিটে বার্সেলোনার হয়ে ডেডলক খোলেন চলতি মরশুমে জার্সি বদলে বার্সেলোনায় আসা আতোয়াঁ গ্রিজম্যান। নিজেদের অর্ধ থেকে ডিফেন্ডার ক্লিমেন্ট লেংলেটের সাজিয়ে দেওয়া বল ধরে সোলো রানে বিপক্ষ বক্সে প্রবেশ করেন ফরাসি স্ট্রাইকার। এরপর ঠান্ডা মাথায় বিপক্ষ গোলরক্ষককে পরাস্ত করে ব্যবধান ১-০ করেন গ্রিজু। প্রথমার্ধে এক গোলে এগিয়ে থেকেই লকাররুমে যায় ভালভের্দের দল। এরপর ৫৮ মিনিটে লিওনেল মেসির গোলের পিছনে আইবার রক্ষণে তিকিতাকার ছোঁয়া। সুয়ারেজ বল পেয়ে তা ঠেলে দেন গ্রিজম্যানের পায়ে। ফরাসি স্ট্রাইকার আলতো টোকায় গোলের বল সাজিয়ে দেন আর্জেন্তাইনের জন্য। বল জালে রাখা ছাড়া কোনও উপায় ছিল না মেসির পক্ষে।

৬৬ মিনিটে ২-০ গোলে আগুয়ান বার্সেলোনাকে তৃতীয় গোলের সন্ধান দেন লুইস সুয়ারেজ। যদিও এক্ষেত্রেও বার্সা আপফ্রন্টে সেই ত্রিফলার যুগলবন্দি। মাঝমাঠ থেকে তৃতীয় গোলের কান্ডারি গ্রিজম্যান। ফরাসি স্ট্রাইকারের থ্রু বল ধরে বক্সে পৌঁছে তা সুয়ারেজের উদ্দেশ্যে বাড়িয়ে দেন মেসি। ফাঁকা গোলে বল ঠেলতে কোনও ভুল করেননি সুয়ারেজ। তৃতীয় গোলের পাশাপাশি দলের তিন পয়েন্ট নিশ্চিত করেন উরুগুয়ে স্ট্রাইকার। জয়ের ফলে ৯ ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত লিগের মগডালে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা।

অন্যদিকে একইদিনে রিয়াল মালোর্কাকে হারিয়ে লিগ শীর্ষে থাকার সুযোগ হাতছাড়া করল রিয়াল মাদ্রিদ। অ্যাওয়ে ম্যাচে এদিন ৭ মিনিটে লাগো জুনিয়রের গোলে পিছিয়ে পড়ে লস ব্ল্যাঙ্কোসরা। এরপর বাকি সময়ে হাজার চেষ্টা করেও ম্যাচে ফেরা সম্ভব হয়নি তাঁদের। ফলস্বরূপ চলতি লা-লিগে প্রথম হারের স্বাদ নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় জিদানের দলকে। ৯ ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদের পয়েন্ট ১৮।