বেলো হরাইজন্তে: প্রথম ম্যাচে কলম্বিয়ার কাছে হার৷ দ্বিতীয় ম্যাচে প্যারাগুয়ের সঙ্গে ড্র৷ কোপা আমেরিকার গ্রুপ লিগ থেকেই বিদায় নেওয়ার আশঙ্কা চেপে বসেছে আর্জেন্তিনার ঘাড়ে৷ দু’টি ম্যাচের শেষে চার দলের গ্রপে (বি) লাস্ট বয় মেসিরা৷ এই অবস্থায় শেষ ম্যাচে অভাবনীয় কিছু করে দেখালেও নক-আউটে যাওয়া নিশ্চিত নয় আর্জেন্তিনার৷

তবে রাস্তা একেবারে বন্ধ হয়ে যায়নি৷ মেসিরা নিজেদের শেষ গ্রুপ ম্যাচ জিতলে প্যারাগুয়ে-কলম্বিয়া ম্যাচের ফলাফলের নিরিখে প্রথম দুইয়ে থেকে সরাসরি কোয়ার্টার ফাইনালে যেতে পারে অর্জেন্তিনা৷ তা না হলেও ‘সেরা তৃতীয়’ হয়ে শেষ আটে যাওয়ার সুযোগ থাকছে মেসিদের সামনে৷

কলম্বিয়ার বিরুদ্ধে কোপার প্রথম ম্যাচে ০-২ গোলে হারতে হয়েছিল আর্জেন্তিনাকে৷ প্যারাগুয়ের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় ম্যাচে ১-১ গোলে ড্র করে তারা৷ রিচার্ড সঞ্চেজের প্রথম আন্তর্জাতিক গোলের সুবাদে প্যারাগুয়ে ম্যাচের প্রথমার্ধেই লিড নিয়ে নেয়৷ দ্বিতীয়ার্ধে পেনাল্টি থেকে গোল করে আর্জেন্তিনাকে সমতায় ফেরান মেসি৷ শেষ পর্যন্ত ম্যাচের স্কোর-লাইনে আর কোনও বদল হয়নি৷ যদিও এক্ষেত্রে মেসি নন, আর্জেন্তিনার নায়ক গোলরক্ষক ফ্র্যাঙ্কো আর্মানি৷ ডার্লিস গঞ্জালেজের পেনাল্টি বাঁচিয়ে তিনিই আর্জেন্তিনাকে নিশ্চিত পতনের হাত থেকে রক্ষা করেন৷

ম্যাচের শুরুটা ছন্দবদ্ধ হয়নি দু’দলের কাছেই৷ রেফারিকে একাধিকবার ফাউলের নির্দেশ দিয়ে ম্যাচের গতিরোধ করতে হয়৷ ৩৪ মিনিটে গোল করার যথার্থ সুযোগ পেয়েছিল আর্জেন্তিনা৷ যদিও ফ্রি-কিক থেকে গোল করতে ব্যর্থ হন মেসি৷

৩৭ মিনিটে প্যারাগুয়ের হয়ে গোলের খাতা খুলে পেলেন স্যাঞ্চেজ৷ নিউক্যাশল ইউনাইটেডের মিডফিল্ডার মিগুয়েল অ্যালমিরনের পাস থেকে কেরিয়ারের প্রথম আন্তর্জাতিক গোল করেন তিনি৷ প্রথমার্ধের খেলা শেষ হয় আর্জেন্তিনার বিপক্ষে ০-১ গোলে৷

দ্বিতীয়ার্ধে স্পট কিক থেকে গোল শোধ করেন মেসি৷ ৫৭ মিনিটে আর্জেন্তিনা ভিএআরের সৌজন্যে পেনাল্টি পেলে বল জালে রাখতে কোনও ভুল করেননি মেসি৷ প্যারাগুয়ের বিরুদ্ধে মেসির এটি পঞ্চম গোল৷ পাঁচটিই এসেছে সেট পিস থেকে৷

৬৩ মিনিটে পেনাল্টি থেকে পুনারায় ব্যবধান তৈরির সুযোগ পেয়ে যায় প্যারাগুয়ে৷ তবে গঞ্জালেজের পেনাল্টি কিক প্রতিহত হয় আর্মানির দস্তানায়৷ না হলে কোপার ইতিহাসে প্যারাগুয়ে তাদের প্রথম জয় তুলে নিতে পারত আর্জেন্তিনার বিরুদ্ধে৷ তা না হওয়ায় প্যারাগুয়ের বিরুদ্ধে অপরাজিত থাকার রেকর্ড বজায় রাখে মেসিরা৷ তবে তাদের কোপা অভিযানে বড়সড় প্রশ্নচিহ্ন পড়ে যায়৷

২ ম্যাচে ১ পয়েন্ট নিয়ে আর্জেন্তিনা এখন ‘বি’ গ্রুপের চতুর্থ স্থানে৷ ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে কলম্বিয়া৷ দ্বিতীয় স্থানে থাকা প্যরাগুয়ের সংগ্রহ ২ পয়েন্ট৷ তিন নম্বরে কাতার রয়েছে ১ পয়েন্ট নিয়ে৷ শেষ ম্যাচে কাতারকে হারাতে পারলে আর্জেন্তিনার পয়েন্ট দাঁড়াবে ৪৷ প্যারাগুয়ে শেষ ম্যাচে কলম্বিয়াকে হারাতে না পারলে ৩ পয়েন্টের বেশি সংগ্রহ করা সম্ভব নয় তাদের পক্ষে৷ সেক্ষেত্রে গ্রুপে দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসতে পারে আর্জেন্তিনা৷

তা না হলেও তিনটি গ্রুপের তৃতীয় স্থানে থাকা দলের মধ্য থেকে দু’টি দলের সামনে কোয়ার্টারে যাওয়ার রাস্তা খোলা থাকছে৷ সেক্ষেত্রেও ‘সেরা তৃতীয়’র দরজা দিয়ে নকআউটে ঢুকে পড়তে পারে মেসি অ্যান্ড কোং৷