বার্সেলোনা: করোনাভাইরাস গোটা মানবাজাতিকে এক অভূতপূর্ব পরিস্থিতির মুখোমুখি দাঁড় করিয়েছে। মারণ ভাইরাস থেকে বাঁচতে প্রত্যেকেই নিত্য নতুন পন্থা অবলম্বন করছেন, কঠিন সময়ে নিজেকে ফিট রাখতে ঘরবন্দি অবস্থাতেও নতুন উপায় খুঁজে বের করছেন। এমন সময় লিওনেল মেসিই বা বাদ থাকবেন কেন। করোনা থেকে বাঁচতে তাই ঘরে নতুন ম্যাট্রেস নিয়ে এলেন আর্জেন্তাইন ফুটবল মায়েস্ত্রো।

শুক্রবার উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ আটের লড়াইয়ে জার্মান জায়ান্ট বায়ার্ন মিউনিখের মুখোমুখি মেসির বার্সেলোনা। তার আগে টেক ডিপসের রিপোর্ট অনুযায়ী লিও ঘরে নিয়ে এসেছেন একটি ম্যাট্রেস। দাম ৯০০ ডলার অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় যার আনুমানিক মূল্য ৭০ হাজার টাকা। এই ম্যাট্রেস বা ঘুমনোর গদি করোনা ভাইরাসকে চার ঘন্টার খতম করবে বলে দাবি করেছে প্রস্তুতকারক ‘টেক মুন’ সংস্থা। কীভাবে গোটা বিষয়টি সম্ভব, তাও জানিয়েছে সংস্থাটি।

তাদের দাবি গদিতে মজুত ন্যানোপার্টিকল ‘ভিরুক্লিন’ পদ্ধতির সাহায্য নিয়ে ৯৯ শতাংশ ভাইরাস কিংবা ব্যাকটেরিয়াকে বিনষ্ট করতে সক্ষম। অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ ফুটবলার সল নিগুয়েজ এই ম্যাট্রেস প্রস্তুতকারক সংস্থার একজন অ্যাম্বাসেডর। মেসি ছাড়াও ম্যাঞ্চেস্টার সিটির তারকা স্ট্রাইকার তথা মেসির জাতীয় দলের সতীর্থ সার্জিও আগুয়েরোও করোনা থেকে দূরে থাকতে এই ম্যাট্রেস বা গদি কিনেছেন বলে জানা গিয়েছে। লিসবনে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ কোয়ার্টারে খেলতে গিয়েও মেসি এই ম্যাট্রেস সঙ্গে রাখছেন বলে জানা গিয়েছে।

গত সপ্তাহে ন্যু-ক্যাম্পে প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালের দ্বিতীয় রাউন্ডে নাপোলিকে ৩-১ গোলে ধরাশায়ী করেছে বার্সেলোনা। প্রথম লেগ ১-১ গোলে শেষ হওয়ায় এগ্রিগেটে ৪-২ গোলে জিতে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে কাতালান ক্লাবটি। ম্যাচে নিজেকে উৎকর্ষতার চরম শিখরে নিয়ে গিয়ে একটি দুরন্ত গোল করেন মেসি। তাঁর জন্য একটি পেনাল্টিও পায় বার্সা। যদিও কোয়ার্টার ফাইনালে সামনে রবার্ট লেওয়ানদোস্কি সমৃদ্ধ বায়ার্ন মিউনিখ।

অর্থাৎ, লড়াই যে ভীষণ কঠিন, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। শুক্রবার তৃতীয় কোয়ার্টার ফাইনালে মুখোমুখি হবে এই দু’দল। উল্লেখ্য, করোনার জেরে টুর্নামেন্ট সংক্ষিপ্ত হওয়ায় কোয়ার্টার থেকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের লড়াই নক-আউট।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও