দিঘা: ধেয়ে আসছে ফণী৷ তাই পর্যটকদের সমুদ্রে বেড়াতে যাওয়ার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা ছিল৷ কিন্তু সেই নিষেধাজ্ঞার পরোয়া না করেই সমুদ্রে যান এক মহিলা পর্যটক৷ তাতেই ঘটে বিপত্তি৷ উত্তাল সমুদ্রের জলে তলিয়ে যেতে বসেছিল৷ কিন্তু নুলিয়াদের জন্য প্রাণে বেঁচে যান৷

ঘটনাটি ঘটেছে ওল্ড দিঘাতে৷ গতকাল সন্ধ্যায় পুলিশের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করেই সমুদ্র সৈকতে বসে থাকার সময় বড়সড় ঢেউয়ের ধাক্কায় তলিয়ে যান মুম্বাই নিবাসী ওই মহিলা৷ সমুদ্রের জলে প্রায় তলিয়ে যাচ্ছিলেন৷ কিন্তু দুর থেকে ওই মহিলাকে জলে হাবুঢুবু খেতে দেখে জলে ঝাঁপ মারে নুলিয়ারা৷ কিন্তু উত্তাল সমুদ্রের বড় বড় ঢেউ বারবার বাধা তৈরি করে৷ সব বাধা পেরিয়ে কোনওরকমে মহিলাকে উদ্ধার করে পারে নিয়ে আসে নুলিয়ারা৷

জানা গিয়েছে, মুম্বই নিবাসী ওই মহিলা পর্যটক ও তাঁর স্বামী তাদের কলকাতার আত্মীয়দের সঙ্গেই দলবেঁধে দিঘায় এসেছিলেন। গতকাল সন্ধ্যের মুখে ওল্ড দিঘার এক নম্বর ঘাটের সামনে বিপজ্জনকভাবেই স্বামীর সঙ্গে বসেছিলেন ওই মহিলা পর্যটক। আচমকাই বড় একটি ঢেউ সৈকতে আছড়ে পড়লে ঢেউয়ের ধাক্কায় সমুদ্রে তলিয়ে যান সাবানা ফিরদৌস নামে ওই মহিলা। যাকে নুলিয়ারা উত্তাল সমুদ্রে ঝাঁপিয়ে পড়ে উদ্ধার করে। আহত অবস্থায় তাঁকে দিঘা হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসাও করা হয়।