শ্রীনগর: জম্মু কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতির মুখে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের স্তুতি৷ সেখানকার এক বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম গুরু নানকের নামে রাখায় পাক সরকারের ভূয়সী প্রশংসা করেন তিনি৷ উল্টোদিকে গোরক্ষার নামে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের সমালোচনা করেন৷ তাঁর অভিযোগ, হিন্দুত্বের তাস খেলছে বিজেপি৷ আর তার মাসুল গুণছে দেশের সংখ্যালঘুর মুসলিমরা৷

কেন্দ্রের বিজেপির সরকারকে বিঁধে জম্মু কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি জানান, বিজেপির উগ্র হিন্দুত্বের রাজনীতি করছে৷ গোরক্ষার কারণে মুসলিমদের হত্যা করা হচ্ছে৷ অপরাধীদের কঠোর সাজা দেওয়ার বদলে তাদের জাতীয় সুরক্ষা ধারায় জেলে পাঠানো হয়েছে৷

কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদী নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে জারি মেহবুবার আক্রমণ৷ এবার গোরক্ষা ও হিন্দু এজেন্ডা নিয়ে বিজেপিকে তোপ দাগেন তিনি৷ জানান, এখন শুধু নাম বদলের রাজনীতি ও মন্দির নির্মাণের প্রতিযোগিতা হচ্ছে৷ কেন্দ্রের শাসক দল শুধু রামমন্দির নির্মাণে বেশি আগ্রহী৷ প্রাচীন মনুমেন্ট ও ঐতিহ্যশালী শহরের নাম বদলে হিন্দু নাম রাখা হচ্ছে৷ গোরক্ষার নামে মুসলিমদের খুন করা হচ্ছে৷ হিন্দুত্বের নামে রাজনীতি হচ্ছে৷

এরপেরই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসায় মুখ খোলেন পিডিপি নেত্রী৷৷ জানান, পাকিস্তানে আইন করে মন্দির বাঁচানোর উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে৷ বন সংরক্ষণে জোর দেওয়া হচ্ছে৷ এছাড়া এক বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম গুরু নানকের নামে রাখাও হয়েছে৷ পাকিস্তান ধর্মের ভিত্তিতে তৈরি দেশ আর ধর্মীয় নিরপেক্ষতা ভারতের মূল ভিত্তি৷ কিন্তু এখন দুই দেশের তুলনা করলে যেন মনে হবে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে মনোভাব পরিবর্তনের আদানপ্রদান হয়েছে৷