গুয়াহাটি ও শিলং: নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন থেকে অসমকে দূরে রাখুন। এমনই দাবি জানালেন মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী কনরাড সাংমা। অসমের একটি জনসভায় তিনি ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আইনটি নিয়ে সতর্কতা দিলেন।

কলকাতার প্রধানমন্ত্রী মোদীর সিএএ নিয়ে ভাষণের পর প্রথম মুখ খুললেন মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী কনরাড সাংমা।তিনি অসম সফরে এসে বলেন, সিএএ আইন জারি হলেও অসমের জনগণকে বিশেষ সুরক্ষা দিতে হবে।

মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রীর ভাষণের পর অসমের রাজনৈতিক মহল আলোড়িত। তিনি আরও বলেন,পুরো মেঘালয়ের জন্য ইনার লাইন পারমিট অবিলম্বে চালু করুক কেন্দ্র সরকার। আমি মনে করি, অসম সহ সমগ্র উত্তর পূর্ব ভারতের জনগণের বিশেষ সুরক্ষার প্রয়োজন।

স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিন ও পোর্ট ট্রাস্টের অনুষ্ঠান উপলক্ষে কলকাতায় দু দিনের সফরে এসে প্রবল বিক্ষোভের মুখে পড়েন প্রধানমন্ত্রী।

রবিবার তিনি বেলুড় মঠ রামকৃষ্ণ মিশনের অনুষ্ঠানের ভাষণ দিতে গিয়ে বলেন নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনে উত্তর পূর্ব ভারতবাসীর কোনও ক্ষতি হবে না। এই আইনের ভুল বিশ্লেষণ করা হচ্ছে।

সিএএ বিরোধী তৃণমূল, বামপন্থী, কংগ্রেস ও বিভিনন্ন নাগরিক সংগঠনের প্রবল বিরোধিতা হয়েছে। তারই মধ্যে মোদী রামকৃষ্ণ মিশনের মঞ্চ থেকে আইনের পক্ষে প্রচার চালানোয় বিতর্ক তুঙ্গে। বিজেপি বিরোধীদের অভিযোগ, রামকৃষ্ণ মিশনের মঞ্চke
রাজনীতির হাতিয়ার করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

পশ্চিমবঙ্গের সরকার ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, কোনোভাবেই সিএএ রাজ্যে লাগু করতে দেওয়া হবে না। আইনের বিরোধিতায় তিনিও শনিবার রাতে দীর্ঘ সময় দলীয় ছাত্র সংগঠনের মঞ্চে অবস্থান করেন।