কলকাতা:  পুরভোট নিয়ে রাজ্য নির্বাচন কমিশনে সর্বদলীয় বৈঠক। বৈঠকে বিরোধীদের অভিযোগ, শাসকদলের নেতৃত্বে রাজ্যজুড়ে সন্ত্রাস চলছে। সিপিআইএমের দাবি, অধিকাংশ জায়গাতেই প্রচার করা যাচ্ছে না। দেওয়াল লিখন মুছে দেওয়া হচ্ছে। কংগ্রেসের অভিযোগ, তৃণমূলের চাপে বহুজায়গায় প্রার্থী দিয়েও প্রত্যাহার করে নিতে হয়েছে। একই আর্জি বিজেপিরও। সর্বদলীয় বৈঠকে সুষ্ঠ নির্বাচনের দাবিতে সরব হবে বিরোধীরা। অন্যদিকে শাসক দল এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে বলেছে, সাংগঠনিক ত্রুটির কারণে প্রার্থী না দিতে পারার দায় এখন তৃণমূলের ওপর চাপানো হচ্ছে। ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকার জানিয়ে দিয়েছে আধাসামরিক বাহিনী নিয়ে তাদের কোনও আপত্তি নেই। কোথায় কত কোম্পানি আধাসামরিক বাহিনী দেওয়া হবে তাও চূড়ান্ত হবে বৈঠকে।

(সর্বশেষ আপডেট 04.08)

শনিবার পুরভোট নিয়ে সর্বদলীয় বৈঠক হতে চলেছে নির্বাচন কমিশনে। বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন সব দলের প্রতিনিধিরা। ভোতের সময়সীমা বাড়ানোর যে আবেদন শাসক দলের পক্ষ থেকে করা হয়েছিল, তা নিয়ে এদিন সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

আগামী ১৮ এপ্রিল কলকাতা পুরসভার ভোট। ওইদিন ভোটের সময় বাড়িয়ে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত করার আবেদন জানানো হয়েছিল। সেই আবেদন মেনে নেওয়া হবে বলে মনে করছে তৃণমূল।

জেলবন্দি তথাকথিত অপরাধীদের আলোর জগতে ফিরিয়ে এনে নজির স্থাপন করেছেন। মুখোমুখি নৃত্যশিল্পী অলোকানন্দা রায়।