স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়াঃ রাস্তার পাশে যত্রতত্র গজিয়ে ওঠা মাংসের দোকান গুলি থেকে এলাকায় পরিবেশ দূষণের অভিযোগ তুলে বাঁকুড়া শহরের ভৈরব স্থান মোড়ে পথ অবরোধ করলেন স্থানীয় বাসিন্দারা। দিনের ব্যস্ততম সময়ে এই অবরোধের ফলে শহরের গোবিন্দনগর বাসস্ট্যাণ্ডে ঢোকার মুখে আটকে পড়ে বহুযাত্রীবাহী বাস। সমস্যায় পড়েন অসংখ্য সাধারণ মানুষ।

অবরোধকারীদের অভিযোগ, ঐ এলাকায় রাস্তার দু’পাশে অসংখ্য মাংসের দোকান তৈরী হয়েছে। প্রকাশ্যে ছাগল কাটা নিষিদ্ধ হলেও দিনের পর দিন সেই কাজ করা হচ্ছে। এমনকি ছাগল কাটার পর সমস্ত আবর্জনা যত্রতত্র ফেলে দেওয়া হচ্ছে। ফলে পরিবেশ দূষণের পাশাপাশি এলাকার শিশুদের মধ্যে এর ব্যাপক প্রভাব পড়ছে। পথ অবরোধের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বাঁকুড়া সদর থানার পুলিশ। তারা অবরোধকারীদের সঙ্গে আলোচনা করে অবরোধ তুলে দেয়।

অবরোধে অংশ নিয়ে স্থানীয় নব পল্লীর বাসিন্দা অরিন্দম চৌধুরী বলেন, এলাকায় দিনের পর দিন মাংসের দোকান বেড়েই চলেছে। এর বিরোধীতা করলেও সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা কর্ণপাত করেননি, উল্টে হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ। একই সঙ্গে তিনি বলেন, ছাগল কাটার দৃশ্য থেকে একটি বাচ্ছা হঠাৎ অজ্ঞান হয়ে পড়ে। এলাকার পরিবেশ দূষণ রুখতে অবিলম্বে এই এলাকা থেকে ঐ মাংসের দোকান গুলি সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার দাবিও জানান তিনি।

যদিও এবিষয়ে সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা সংবাদমাধ্যমের ক্যামেরার সামনে মুখ খুলতে রাজি হননি। অবিলম্বে এই এলাকা থেকে সমস্ত মাংসের দোকান সরিয়ে না নিলে বিক্ষোভকারীরা বৃহত্তর আন্দোলনের হুঁশিয়ারী দিয়েছেন।