কলকাতা : পিয়ের বোয়া বলছেন, স্পোর্টিং ম্যাচ আমাদের কাছে সেমিফাইনাল ৷ কোচ সঞ্জয় সেনের প্রায় একই মত ৷ তিনিও স্পোর্টিং ম্যাচ সেমিফাইনাল হিসেবেই দেখছেন ৷ ওয়াহিংডো ম্যাচ জেতার পরে হারানো আত্মবিশ্বাস কিছুটা হলেও ফিরে পেয়েছে বাগান ৷ সেই আত্মবিশ্বাস মূলধন করেই শনিবার বারাসতে স্পোর্টিং গোয়াকে হারাতে মরিয়া সঞ্জয় সেনের ছেলেরা ৷ এই ম্যাচ জেতার উপর নির্ভর করছে বাগান আই লিগ চ্যাম্পিয়নশিপ জিততে পারবে কি না ৷ স্পোর্টিং ম্যাচে কোনও অঘটন ঘটলে আই লিগ জয়ের স্বপ্ন প্রায় মুছে যাবে গঙ্গাপাড়ের সবুজ-মেরুন তাঁবুর ৷ ওডাফা ওকোলিদের হারালে শুধু আই লিগের দৌড়ে টিকে থাকবে না, সেই সঙ্গে প্রথম লেগে হারের বদলাও নিয়ে নেবে সঞ্জয়ের ছেলেরা ৷ স্পোর্টিং ম্যাচের ২৪ ঘণ্টা আগে এই তত্ত্বও ভাবাচ্ছে বাগান শিবিরকে ৷

তন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায় সিনিয়র রিপোর্টার kolkata24x7
তন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়
সিনিয়র রিপোর্টার kolkata24x7

ওয়াহিংডো ম্যাচ জেতার জন্য শিবির আত্মবিশ্বাসী হলেও কিছুটা সমস্যা রয়েছে বাগানের ৷ কী সমস্যা ? চোট থাকার জন্য ধনচন্দ্র সিং, সুখেন দে ও জেজে শনিবারের ম্যাচে অনিশ্চিত৷ সম্ভবত এই বাগান ফুটবলাররা স্পোর্টিংয়ের বিরুদ্ধে খেলতে পারবেন না৷ পাশাপাশি দলের অন্যতম সেরা স্ট্রাইকার বলবন্ত সিং-এর জ্বর ৷ যদিও স্পোর্টিং ম্যাচে খেলবেন বলবন্ত ৷ এদিকে নর্ডি, শেহনাজ ও কিংশুকের তিনটি করে হলুদ কার্ড রয়েছে ৷ তাই স্পোর্টিংয়ের বিরুদ্ধে সতর্ক হয়ে খেলতে হবে নর্ডিদের ৷ যদিও জেজে-রা খেলতে না পারলেও বাকি ফুটবলাররা সামলে নেবে বলে মনে করছে টিম ম্যানেজমেন্ট ৷
এবার দেখার স্পোর্টিং-এর বিরুদ্ধে কী দল নামাতে চলেছে সবুজ-মেরুন ? গোলে যথারীতি শিলটন ৷ ওয়াহিংডো ম্যাচে দুরন্ত গোলরক্ষা করেছেন শিলটন ৷ তাই স্পোর্টিংয়ের বিরুদ্ধে তিনিই দলের দুর্গ সামলাবেন ৷ দুই স্টপার আনোয়ার ও বেলো ৷ লেফট ব্যাক প্রতীম ৷ রাইট ব্যাক কিংশুক ৷ দুই সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার শেহনাজ ও সৌভিক ৷ রাইট হাফে কাটসুমি ৷ যথারীতি লেফট হাফে নর্ডি ৷ আক্রমণে বলবন্ত ও বোয়া ৷ বলবন্তের কিছুটা পিছনে শুরু করবেন বোয়া ৷
মোহন কোচ সঞ্জয় সেন প্রায়ই বলেন, ‘শুনেছি ডার্বি না জিতলে কোচ হিসেবে সিদ্ধিলাভ করা যায় না ৷’ এবার শুধু ডার্বি নয়, আস্ত একটা আই লিগ-ই জেতার সুযোগ চলে  এসেছে তাঁর সামনে ৷ সেই স্বপ্ন পূরণ করতে মরিয়া তিনি ৷ বহুদিন পরে কলকাতার কোনও দলের আই লিগ জেতার সুযোগ এসেছে৷ সেই সুযোগ হাতছাড়া করতে চাইছে না মোহনবাগানও ৷ সদস্য সমর্থকরা সকলেই বেশ উত্তেজিত ৷ সবুজ-মেরুন উদ্বেলে ভাসছেন সকলেই ৷  এখন দেখার শনিবার স্পোর্টিং বধ করতে পারে কি না সঞ্জয়ের ছেলেরা ৷