সুভীক কুন্ডু: লেজেন্ড ম্যাচে বার্সেলোনার প্রাক্তনীদের কাছে হাফ ডজন গোল হজম মোহনবাগানের৷ কলকাতার বুকে প্রথমবার খেলে গেল মেসির ক্লাবের পূর্বসূরিরা৷ গ্যালারিতে বার্সা বার্সা চিৎকারে দিল ছুঁয়েছে ক্লাবের কোচ থেকে ফুটবলারদের৷ ম্যাচ শেষে তাই মাইক্রোফোন হাতে তুলে নিয়ে গ্যালারর দর্শকদের উদ্দেশ করে মাঠ থেকেই ‘কলকাতা আই লাভ ইউ’ বলতে শোনা গেল বার্সা লেজেন্ড দলের তারকাদের৷ আর এই ম্যাচে একবার ১২ জনে খেলে একরাশ লজ্জাবহন করল শতাব্দীপ্রাচীন মোহনবাগন৷

এই ম্যাচ আয়োজনে পদে পদে ছিল অব্যবস্থা৷ ম্যাচের দিন সাংবাদিকদের অতিপ্রয়োজনীয় প্লেয়ার লিস্ট ছাপিয়ে উঠতে পারেনি আয়োজকরা৷ এ সবের পরও লেজেন্ড ম্যাচ থেকে ভবিষ্যতের স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছে উদ্যোক্তরা৷ জানা গেল ভারত থেকে উঠতি ফুটবলারদের প্রশিক্ষণের জন্য স্প্যানিশ জায়েন্ট ক্লাবের সঙ্গে টাই-আপ করার চেষ্টা চলছে৷

আরও পড়ুন- আইএসএল থেকে যুবভারতীর প্রশংসায় বার্সা লেজেন্ডরা

মূলত এ রাজ্যের নামি ক্লাবের ১০-১৪ বয়সভিত্তিক দল থেকে ফুটবলার বাছাই করে বার্সেলোনায় ট্রেনিংয়ে জন্য নিয়ে যাওয়ার প্রস্তাব রাখতে চলেছে লেজেন্ড ম্যাচের আয়োজকরা৷ ভারতে ইতিমধ্যেই দিল্লি ও মুম্বইতে বার্সার ফুটবল অ্যাকাডেমি রয়েছে৷ ভবিষ্যতে স্প্যানিশ ক্লাব চাইলে কলকাতাতেও তাঁদের ফুটবল স্কুল তৈরি করা হবে৷ ম্যাচের শেষে এসবই শুনিয়ে গেলেন রাজ্যের প্রাক্তন ক্রীড়ামন্ত্রী ও লেজেন্ড ম্যাচের সঙ্গে যুক্ত মদন মিত্র৷

শুধু তাই নয়, আগামী দিনে ফুটবল মক্কা আরও বড় চমক পেতে চলেছে৷ বিদেশের নামী এক ক্লাব শীঘ্রই কলকাতায় তাদের সামার ক্যাম্প করতে আসছে বলে জানালেন মদন মিত্র৷ ডিসেম্বরে হতে চলা সেই প্রস্তুতি শিবিরকে অবশ্য সামার ক্যাম্প বলা চলে কিনা না সন্দেহ আছে৷ তবে চমক থাকছেই৷ যেমন চমক ছিল এদিনের ম্যাচে৷ ম্যাচের প্রথম ১৫ মিনিটে বিরতির পর ১২ জনে খেলে মোহনবাগান৷ যা দেখে রেফারির কাছে আপত্তি করেন বার্সা লেজেন্ড গার্সিয়া৷ তার পরই ভুল সংশোধন করে একজনকে তুলে নেয় বাগান কোচ সুব্রত ভট্টাচার্য৷

আরও পড়ুন- বার্সার কাছে হাফ ডজন গোল হজম বাগানের

অন্যদিকে লেজেন্ড ম্যাচের শেষে বাগান প্রাক্তনীদের শিবিরে হাওয়া গরম৷ যুবভারতীর প্রেস রুমে সোশ্যাল মিডিয়ার নেটিজেনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন বাগানের প্রাক্তন ফুটবলার আলোক দাস৷ লেজেন্ড ম্যাচে বার্সার বিরুদ্ধে মোহনবাগান দলে যারা ছিলেন তাঁদের নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া শেষ দু’তিন দিন ধরে অনেক বিতর্ক হয়েছে৷ এই ম্যাচে খেলেছেন দীপেন্দু বিশ্বাস, হেমন্ত ডেরা, সন্দীপ নন্দী, রহিম নবির মত বাগানের একাধিক প্রাক্তন ফুটবলার৷ এই প্রাক্তনরা আদোও লেজেন্ড কিনা, সেই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ার একাধিক ফ্যান গ্রুপে প্রশ্ন তুলতে শুরু করে নেটিজেন৷ ওনেকেই লিখেছেন এই দলের কোচ সুব্রত ভট্টাচার্যই একমাত্র এদের মধ্যে লেজেন্ড৷ এমন সব মন্তব্য চোখে পড়েছে দীপেন্দু, আলোক দাসের৷

বাগান প্রাক্তন অলোক ম্যাচ শেষে বলেন, ‘প্রাক্তনদের নিয়ে একটা দল তৈরি করে লেজেন্ড ম্যাচ খেলা হয়েছে৷ আমরা কেউই নিজেদের কিংবদন্তি বলছি না, কিন্তু এতবছর ধরে ফুটবলকে ভালোবেসে খেলে গিয়েছি৷ ফ্যানেদের থেকে নূন্যতম সম্মানটুকু আশা করি৷’