স্টাফ রিপোর্টার, কৃষ্ণনগর: লকডাউনের জেরে ১০৩ দিন বন্ধ থাকার পরে গুরুপূর্ণিমার দিনে খুলল নদিয়া মায়াপুরের ইসকনের মন্দির। স্বাস্থ্যবিধি মেনে মন্দিরে ঢোকা ও পুজো দেওয়া হবে বলেই জানানো হয়েছে।

ইসকন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, মন্দিরের ভিতরে ৬ ফুট দূরত্ব বজায় রাখতে হবে ভক্তদের। প্রধান গেটে প্রথমে দর্শনার্থীদের থার্মাল স্ক্রিনিং করা হচ্ছে। তারপরেই তাঁদের ভিতরে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে। স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হচ্ছে দর্শনার্থীদের। মন্দিরের ভিতরে থাকা প্রত্যেককে মাস্ক বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে ইসকন কর্তৃপক্ষ। তাদের নতুন নিয়মে বলা হয়েছে, সকাল ৯ টা থেকে ১২টা পর্যন্ত, বিকেল ৪টে থেকে ৬টা পর্যন্ত মূল মন্দিরে যাওয়া যাবে। মন্দির চত্বরে বেশিক্ষণ বসে থাকা, ধ্যান করা কিংবা শুয়ে প্রণাম করাও যাবে না বলেই জানিয়েছে ইসকন কর্তৃপক্ষ।

বলে রাখি, গত ৮জুনের পর মায়াপুর ইসকনে ভক্তদের জন্য মন্দিরের দরজা খুলে দেওয়া হয়। কিন্তু তখন শুধু পুজো দেখতে যাওয়ার অনুমতি ছিল। তাও শুধু মায়াপুরে থাকা দেশ-বিদেশের ভক্তদের এই সুযোগ ছিল। ক্যাম্পাসে ঘোরাঘুরির উপরও নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছিল। তবে এবার সেই নিয়ম কিছুটা শিথিল করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, টানা লকডাউনের জেরে মায়াপুরের ইসকন মন্দিরে বহু কর্মীকে ছাঁটাই করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এবছর রথযাত্রাও নম নম করে সেরেছে ইসকন কর্তৃপক্ষ।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ