নয়াদিল্লি: ১৩০ কোটি জনসংখ্যার এই বিপুল দেশে প্রতিটা ঘরে শিক্ষা পৌঁছে দেওয়া একটা কঠিন কাজ। তবুও দেশের প্রতিটা প্রান্তে শিক্ষার আলো ছড়িতে দিতে নানা প্রকল্প চালু করেছে কেন্দ্রে থেকে একাধিক রাজ্যের রাজ্যসরকার। প্রতিবছর উভয় সরকার মেধাবী শিক্ষার্থীদের একাধিক বৃত্তি (scholarship) দিয়ে থাকে। এর পশাপাশি দেশের অর্থনৈতিক দিক থেকে পিছিয়ে থাকা পরিবারের শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে নানা বৃত্তির (scholarship) ব্যবস্থা।

মনে করা হয় একটা ভালো স্কলারশিপ (scholarship) স্কুল এবং কলেজের শিক্ষার্থীদের জীবনকে পরিবর্তন করতে পারে। এর পাশাপাশি এগুলি ছাত্রদের আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে সঙ্গে ভবিষ্যতের জন্য এক্সপোজার বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে। শুধু সরকার নয় আমাদের দেশে অনেক এনজিও রয়েছে যারা শিক্ষার্থীদের জন্য নানা স্কলারশিপের (scholarship) ব্যবস্থা করে থাকে।

ভারতে কোভিড পরিস্থিতিতে প্রায় সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তাদের অফলাইন পঠন-পাঠন বন্ধ করে অনলাইন ক্লাস চালু করেছে। তবে এই খেত্রেও ডিজিটাল ডিভাইডের কারণে অনেকে শিক্ষার্থী ক্লাস থেকে বঞ্চিত হয়। আবার অন্যদিকে অনলাইন ক্লাসের জন্য পর্যাপ্ত সরঞ্জাম থাকলেও আর্থিক কারণে অনেক শিক্ষার্থী ক্লাস করতে পারছে না, কারণ তারা রিচার্জ করতে অক্ষম হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে মে-জুন মাসে ভারতে দুটি বৃত্তির দেওয়া হচ্ছে, যা শিক্ষার্থীদের আগামী দিনে শিক্ষার ক্ষেত্রে সাহায্য করবে।

 https://www.iiti.ac.in/public/storage/recruitments/April2021/1bNXGSmCOyO6Gylfdveu.pdf

১. ডিএক্সসি প্রগ্রেসিং মাইন্ডস স্কলারশিপ ২০২১ (DXC Progressing Minds Scholarship 2021)

ডিএক্সসি টেকনোলজি তাদের সমস্ত বিই, বিটেক প্রোগ্রামের (BE/BTech program) সিএস, আইটি, ইই, ইসির (CS/IT/EE/EC streams) প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের জন্য বৃত্তির ব্যবস্থা করেছে। এই বৃত্তিটি সমাজের নানা সুবিধা থেকে বঞ্চিত শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার ক্ষেত্রে সাহায্য করবে। পাশাপাশী এই বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবে সেই সমস্ত শিক্ষার্থীরা যাদের আগের শ্রেণীতে ৬০% নম্বর থাকার পাশাপাশি পারিবারিক আয় ৪ লক্ষের মধ্যে রয়েছে। বছরে ৬,০০০ টাকা বৃত্তি পায় এমন শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবে না বলে জানানো হয়েছে। ডিএক্সসি প্রগ্রেসিং মাইন্ডস স্কলারশিপ ২০২১ অনলাইন মাধ্যমে জুন মাসের ১৫ তারিখের আগে আবেদন করতে হবে। এই বৃত্তিতে শিক্ষার্থীদের তাদের প্রতিষ্ঠানে দেওয়া টাকার অর্ধেক অথবা বছরে ৪০,০০০ টাকা পাবে।

২. আইআইএসইআর বেরহামপুর জৈব রসায়ন এবং ন্যানোমেডিসিন ২০২১ ডক্টরাল গবেষণা ফেলোশিপ (IISER Berhampur Post Doctoral Research Fellowship in Biological Chemistry and Nanomedicine 2021)

ইন্ডিয়ার ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চ, বারহামপুর (IISER Berhampur) তাদের বায়োলজিক্যাল কেমিস্ট্রি (Biological Chemistry) এবং ন্যানোমেডিসিন (২০২১ Nanomedicine 2021) এর পোস্ট ডক্টরাল রিসার্চ ফেলোশিপ এবং পিএইচডি (PhD degree) ডিগ্রিধারীদের জন্য বৃত্তির ব্যবস্থা চালু করেছে। এর পাশাপাশি আবেদন করতে পারবে বায়োলজিকাল সায়েন্সেস এবং কেমিক্যাল সায়েন্সেসের ৫ বছরের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন পিএইচডি ডিগ্রির প্রার্থীরাও। মে মাসের ২০ তারিখের মধ্যে ইমেলের (email) মাধ্যমে আবেদন করতে হবে প্রার্থীদের। রিসার্চ ফেলোশিপ এবং পিএইচডি উভয় প্রার্থীদের এইচআরএ (HRA) সঙ্গে প্রতিমাসে ৩১,০০০ টাকা করে দেওয়া হবে। আবেদনের লিঙ্ক নিচে উল্লেখ করা হল।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.