আমস্টারডাম: কঠিন লড়াই৷ তবে অসম্ভব নয়৷ যদি কটিন লড়াইটায় শেষমেশ উতরে যেতে পারেন, তবে সব কিছু ছেড়ে দিয়ে নিশ্চিন্তে বাড়ি চলে যাবেন৷ এমনটাই জানালেন টটেনহ্যাম কোচ মাইউরিসিও পোচেত্তিনো৷

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রথম লেগের সেমিফাইনালে ঘরের মাঠে ০-১ গোলে হারতে হয়েছে আয়াক্সের কাছে৷ ফিরতি লেগে আয়াক্সকে তাদের ডেরায় সামলাতে হবে হটস্পারকে৷ চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ইতিমধ্যেই জুভেন্তাস ও রিয়াল মাদ্রিদের ছুটি করে দিয়েছে ডাচ ফুটবল দলটি৷ লিভারপুলের বিরুদ্ধে এগিয়ে রয়েছে এক কদম৷

আরও পড়ুন: অসম্ভবকে সম্ভব করে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে লিভারপুল

এই অবস্থায় আয়াক্সের বাধা টপকাতে পারলে প্রথম বারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে উঠবে টটেনহ্যাম৷ খেতাবি লড়াইয়ে সামলাতে হবে লিভারপুলকে৷ এত সব হার্ডল টপকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ট্রফি হাতে তুলতে পারলে টটেনহ্যাম কোচের পদ থেকে অব্যহতি নেবেন পোচেত্তিনো৷ আয়াক্সের বিরুদ্ধে মরণ-বাঁচন লড়াইয়ের আগে একথাই জানিয়েছেন তিনি৷

টটেনহ্যামের আর্জেন্তাইন কোচ বলেন, ‘চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়? দারুণ ব্যাপার নয়? পাঁচ বছরের অধ্যায় শেষ করে বাড়ি ফিরে যাব৷’

আরও পড়ুন: মাদ্রিদ, তুরিনের পর লন্ডনেও অব্যাহত আয়াক্সের স্বপ্নের দৌড়

তিনি আরও বলেন, ‘টটেনহ্যামকে এই পরিস্থিতিতে এই মরশুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতাতে পারলে আমাকে ভবিষ্যৎ নিয়ে অন্য কিছু ভাবতে হবে৷ কারণ এমন মিরাকলের পুনরাবৃত্তি করতে হবে তখন৷’

ওলে গানার সোল্কজায়ের ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হওয়ার আগে রেড ডেভিলসদের স্থায়ী কোচের পদে পোচেত্তিনোর নাম ভেসে বেড়াচ্ছিল হাওয়ায়৷ সোল্কজায়ের প্রাথমিক সাফল্য না পেলে ভবিষ্যৎ ম্যান ইউ কোচ হিসাবে পোচেত্তিনোকে দেখতে পাওয়া অসম্ভব কিছু ছিল না৷