হাওড়া: বেলুড়ে রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের উন্নয়নে মঠকে অর্থ সাহায্য করল হাওড়া পুরসভা। মঠের হাজার হাজার ভক্ত-অনুরাগী একসঙ্গে বসেই যাতে প্রসাদ গ্রহণ করতে পারেন তার জন্যে এখানে যে অতিকায় ডাইনিং হল তৈরি করা হচ্ছে, সেই কাজেই অগ্রগতির জন্য হাওড়া পুরসভার পক্ষ থেকে  ৫০ লক্ষ টাকার চেক বেলুড় কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

রবিবার সকালে হাওড়া পুরসভার মেয়র রথীন চক্রবর্তী মঠে গিয়ে সাধারণ সম্পাদক স্বামী সুহিতানন্দ মহারাজের হাতে ওই চেক তুলে দেন। মেয়র জানিয়েছেন, প্রথম পর্যায়ের কাজ শেষ হলে আরও ৫০ লক্ষ টাকা দেওয়া হবে পুরসভার পক্ষ থেকে। জানা গিয়েছে, বেলুড় রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের ডাইনিং হল ও উন্নয়নের জন্য ১ কোটি টাকা দেবার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল হাওড়া পুরসভা। সেইমত রবিবার মহারাজের হাতে ৫০লক্ষ টাকার চেক তুলে দেয় পুরসভা৷ এই ডাইনিং হলটি তৈরি হলে ছয় হাজার মানুষ বেলুড় মঠের প্রসাদ একসঙ্গে গ্রহণ করতে পারবে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.