কেপটাউন: আফ্রিকার দিকে আরও বেশি মুখ ঘোরাচ্ছে করোনাভাইরাস। উত্তর ও দক্ষিণ আমেরিকায় তাণ্ডব এখনও কমেনি। এরই মাঝে দক্ষিণ আফ্রিকায় শুরু হয়েছে ভাইরাসের বড়সড় হামলা। পরিস্থিতি বুঝে আগে থেকেই লাখ লাখ কবর খুঁড়ে রাখছে এখানকার সরকার।

আলজাজিরা জানাচ্ছে, ভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি আরও খারাপ হওয়ার আশঙ্কায় আগাম ১৫ লক্ষ কবর খুঁড়ে রেখে প্রস্তুতি নিচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা সরকার। বিবিসি, রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে দেশটির গাওতেং প্রদেশেই এসব কবর খোঁড়া হচ্ছে। এই দেশের করোনার সবচেয়ে বড় হট স্পট হল গাওতেং।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের রিপোর্ট, দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনা সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা ২ লক্ষ ২৪ হাজারের বেশি। মৃতের সংখ্যা ৩ হাজার ৬০০ জনের অধিক।  বিবিসি জানাচ্ছে কোভিড-১৯ পরিস্থিতি দিনের পর দিন ভয়াবহ হয়ে উঠছে দক্ষিণ আফ্রিকায়। আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যায় আফ্রিকা মহাদেশে শীর্ষে আছে এই দেশ।

গাওতেং প্রদেশের কর্তৃপক্ষ অন্তত ১৫ লাখ কবর খোঁড়ার প্রস্তুতি নিয়ে কাজ শুরু করেছে। কর্মকর্তারা বলছেন এটি রীতিমত অস্বস্তিকর একটি সিদ্ধান্ত। তবে সরকার চেষ্টা করছে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইকে জোরদার করতে।

গাওতেং প্রদেশে আছে দক্ষিণ আফ্রিকার সর্বাধিক বিশ্বপরিচিত শহর জোহানেসবার্গ। শহরটি হলো এই প্রদেশের প্রাদেশিক রাজধানী। স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের রিপোর্ট গাওতেং প্রদেশেই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৭১ হাজারের বেশি। যা পুরো দক্ষিণ আফ্রিকায় মোট আক্রান্তের ৩৩ শতাংশ।

প্রশ্ন অনেক: তৃতীয় পর্ব