স্টাফ রিপোর্ট, বারাকপুর : করোনা সতর্কতার জেরে উত্তর ২৪ পরগনার বারাকপুর শহরে প্রশাসনিক নির্দেশে বন্ধ করে দেওয়া হল রাস্তার পাশে বসা ওয়ারলেস পাড়া বাজার।

জানা গিয়েছে, এই বাজারের মধ্যে ক্রেতা ও বিক্রেতারা সামাজিক দূরত্ব বজায় না রাখায় নতুন করে বারাকপুরে করোনা সংক্রমণের পরিবেশ তৈরি হচ্ছিল। সেই কারনে, পুলিশ প্রশাসন, বারাকপুর পুরসভার সঙ্গে কথা বলে বারাকপুর বারাসাত রোডের উপর বসা ওয়ারলেস পাড়ার অস্থায়ী বাজার বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

প্রশাসনের পক্ষ থেকে বাজারের বিক্রেতাদের কাছে অনুরোধ করা হয়েছে, তাঁরা যেন ভ্যানে করে পাড়ায় পাড়ায় গিয়ে নাগরিকদের বাড়ির সামনে সবজী বিক্রি করেন। আপাতত চলতি মাসের ১৭ মে পর্যন্ত এই ওয়ারলেস পাড়ার বাজার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন।

করোনা সতর্কতার জেরে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন। জানিয়েছেন, বারাকপুর পুরসভার পুরপ্রধান উত্তম দাস।

এর আগেও বারাকপুর ওয়ারলেস পাড়া বাজারে ক্রেতা ও বিক্রেতারা নির্দিষ্ট কোনও সামাজিক দূরত্ব না মেনেই কেনাবেচা করছিলেন। সেই সময় প্রশাসনের নজরে আসে বিষয়টি। তখন বাজারটিকে স্থানান্তরিত করা হয় ওয়ারলেস পাড়ার গোডাউন মাঠে। কিন্তু কয়েকদিন ধরে ঝড়-বৃষ্টি হওয়ায় ওই গোডাউন মাঠে জল জমে যায়।

ফলে, বাজারের ব্যবসায়ীরা বারাকপুর-বারাসাত রোডের ধারে ওয়ারলেস পাড়ার পুরোনো জায়গাতেই সবজী, মাছ নিয়ে গিয়ে বসতে শুরু করেন । ফের সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা নিয়ে সমস্যা তৈরি হয় সেখানে।

এরপরই প্রশাসনের তরফ থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, আপাতত চলতি মাসের ১৭ তারিখ পর্যন্ত বন্ধ করে দেওয়া হবে বাজারটি। সেইমতো এদিন সকাল থেকেই কোনও ব্যবসায়ীকে ওই বাজারে বসতে দেওয়া হয়নি। তাঁদের কাছে অনুরোধ করা হয়েছে, তাঁরা যেন ভ্যানে করে বাজার নিয়ে সাধারন মানুষের বাড়ি বাড়ি যায়।

এই বিষয়ে বারাকপুর পুরসভার পুরপ্রধান উত্তম দাস বলেন, “বাজার যদি মানুষের দরজার সামনে চলে আসে, তবে একদিকে সাধারন মানুষ উপকৃত হবেন। অন্যদিকে, মানুষ বাইরে বেরোবে না । তাতে সরকারি নির্দেশিকা ঠিকমত পালন করা যাবে । সেই কারনেই ১৭ মে পর্যন্ত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এই বাজার। পরবর্তী সিদ্ধান্ত সেই সময় নেওয়া হবে।”

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV