ম্যাঞ্চেস্টার: ম্যাঞ্চেস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের সাম্মানিক ‘ডক্টরেট’ সম্মানে ভূষিত হতে চলেছেন ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের তারকা স্ট্রাইকার মার্কাস রাশফোর্ড। কনিষ্ঠ সদস্য হিসেবে এই সম্মান গ্রহণ করতে চলেছেন ২২ বছরের ইংরেজ ফরোয়ার্ড। দেশের ক্ষুধার্ত শিশুদের মুখে অন্নদানের মতো মহৎ উদ্যোগ গ্রহণ এবং এবিষয়ে সচেতনতা প্রচারের জন্য রাশফোর্ডকে অনন্য সম্মানে সম্মানিত করতে চলেছে ম্যাঞ্চেস্টার বিশ্ববিদ্যালয়।

বুধবার ক্লাবের তরফ থেকে এক বিবৃতিতে একথা ঘোষণা করা হয়েছে। ব্রিটেনের ক্ষুধার্ত শিশুদের জন্য রাশফোর্ডের উদ্যোগ ব্রিটেন জুড়ে সম্প্রতি বহুল প্রশংসিত হয়েছে। ম্যাঞ্চেস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রোফেসর ন্যান্সি রোথওয়েল জানিয়েছেন, ‘মার্কাস একজন অসাধারণ ব্যক্তিত্ব এবং অসাধারণ প্রতিভার অধিকারী। তাঁর সেই প্রতিভার ছাপ ফুটবল মাঠ ছাড়িয়ে অন্যান্য ক্ষেত্রেও পড়েছে সমানভাবে।

তাঁর চ্যারিটি এবং হাই-প্রোফাইল ক্যাম্পেন যে কেবল আমাদের শহরের অগণিত মানুষকে সাহায্য করেছে কেবল তাই নয়। তাঁর কাজের মধ্যে দিয়ে গোটা দেশকেই সাহায্য করেছেন রাশফোর্ড।’ বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফ থেকে প্রদান করা সর্বোচ্চ এই সম্মান গ্রহণ করার সঙ্গে সঙ্গে ক্লাবের প্রাক্তন কোচ এবং ফুটবলার স্যার আলেক্স ফার্গুসন এবং ববি চার্লটনের সঙ্গে একাসনে বসে পড়বেন রাশফোর্ড।

আর এই সম্মান পেয়ে আপ্লুত রাশফোর্ড জানাচ্ছেন, ‘দারিদ্র্যতা দূরীকরণে এখনও অনেকটা পথ আমাকে চলতে হবে। আর দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এব্যাপারে ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি দেখে মনে হচ্ছে ঠিক পথেই এগোচ্ছি, এটাই যথেষ্ট। আমার এবং আমার পরিবারের জন্য এটা একটা গর্বের দিন। অতীতে ডক্টরেট সম্মান পাওয়া নামের তালিকার দিকে তাকালে নিজেকে অনেকটাই ছোট মনে হচ্ছে।’

ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড ম্যানেজার ওলে গানার সোল্কজায়েরও গর্বিত প্রিয় ছাত্রের এমন সম্মান পাওয়ার ঘটনায়। রাশফোর্ডকে একজন অত্যন্ত ভালো মানুষ হিসেবে বর্ণনা করেছেন তিনি। উল্লেখ্য, ইপিএলে প্রথম চারে শেষ করার দৌড়ে দারুণভাবে রয়েছে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড। যদিও সোমবার সাউদাম্পটনের বিরুদ্ধে ২-২ গোলে শেষ করে তৃতীয়স্থানে ওঠার সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করেছে তাঁরা। ওই ম্যাচে একটি গোল করেন রাশফোর্ড।

প্রশ্ন অনেক: তৃতীয় পর্ব