কলকাতা: প্রকাশিত হল ৪৪তম আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলার মানচিত্র। কর্মকর্তাদের মতে কলকাতা বইমেলার ইতিহাসে আগে এমনটা হয়নি। প্রতিবার মেলা শুরুর দু’দিন বাদে মানচিত্র হাতে আসে। তবে এবার একটু আগেই বইমেলার মানচিত্র প্রকাশ করলেন বইমেলার কর্মকর্তারা। সোমবার বইমেলার মাঠে সাংবাদিক সম্মেলনে এই মানচিত্র প্রকাশিত হয়।

আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা পৃথিবীর বৃহত্তম বইমেলা। এবারের মেলায় থাকছে ৬০০ স্টল এবং ২০০ লিটল ম্যাগাজিন নিয়ে আস্ত একটা প্যাভিলিয়ন। এত বড় মেলায় পাঠকদের যাতে স্টল খুঁজে পেতে কোনও রকম অসুবিধে না হয় সে জন্যই এই ম্যাপ প্রকাশ করে পাবলিশার্স এন্ড বুক সেলার্স গিল্ড। শুধু স্টল নয়, এসবিআই অডিটোরিয়াম, গিল্ড অফিস থেকে শুরু করে মিডিয়া কর্নার সমস্ত কিছুর পথনির্দেশ থেকে এই ম্যাপে। এই ম্যাপ অনুসরণ করে চললে নির্দিষ্ট জায়গায় যেতে স্বাভাবিক ভাবেই সুবিধে হয় পাঠাকদের।

এবারের বইমেলায় বিশেষ ভাবে উদযাপন করা ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের দ্বিশতবার্ষিকী। বইমেলায় থাকছে ৬০০ স্টল এবং ২০০ লিটল ম্যাগাজিন। পরিবেশের কথা মাথায় রেখেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বইমেলাকে পরিবেশ বান্ধব বইমেলা করার জন্য এগিয়ে এসেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের নগর উন্নয়ন দফতর। সিইএসসির সহযোগিতায় বইমেলায় থাকছে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ। এই প্রথম বইমেলায় তৈরি করা হবে সাইকেল স্ট্যান্ড।

প্রতি বছর আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলার স্টেট ব্যাংক অডিটোরিয়ামে তিন দিনব্যাপী কলকাতা লিটারেচার ফেস্টিভ্যাল অনুষ্ঠিত হয়। এবার ৬ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে চলবে ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। যোগ দেবেন নানা দেশের নানা ভাষার বহু সম্মানীয় অতিথি। এই উপলক্ষে এসবিআই অডিটোরিয়ামে প্রতিদিনই থাকছে সাহিত্য বিষয়ক নানা অনুষ্ঠান।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও