স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: অবৈধভাবে মদ বিক্রির প্রতিবাদে বিক্ষোভে সামিল হল শতাধিক মহিলা৷ মদ বিক্রির অপরাধে এক মহিলাকে দিয়ে মুচলেখা লিখিয়ে নেন তারা৷ পাশাপাশি ওই এলাকারই আরও দুই অভিযুক্তের গ্রেফতারের দাবিতে কোতোয়ালী থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখায় তাঁরা৷

জানা গিয়েছে, জলপাইগুড়ি সদর ব্লকের বাহাদুর অঞ্চলের সুকুরপাড়া এলাকা দীপালি রায় নামে এক মহিলা দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে মদের দোকান চালাছিল৷ স্থানীয় মহিলারা বহুবার তাকে ব্যবসা বন্ধের জন্য বলেছিল৷ কিন্তু তাদের কোনও কথাই দীপালি পাত্তা দেয়নি৷ তাই তারা বাধ্য হয়ে বিক্ষোভ মিছিলে সামিল হয়৷ পাশাপাশি ওই মহিলাকে দিয়ে দোকান বন্ধের মুচলেখা লিখিয়ে নেন৷

জলপাইগুড়িতে অবৈধ মদের দোকান বন্ধ নিয়ে একের পর এক ঘটনা ঘটেই চলেছে৷ ফের এই ধরণের ঘটনায় উদ্বিগ্ন প্রশাসন৷ স্থানীয়ের দাবি, এলাকায় মদের দোকান খোলা হলে পুরুষরা তাতে আসক্ত হয়ে পড়ে৷ ফলে তাঁদের সংসারে প্রায় দিনই অশান্তি হতে থাকে তাই তারা বিক্ষোভ মিছিলের সিদ্ধান্ত নেয়৷

অন্যদিকে, ওই এলাকারই স্থানীয় বাসিন্দা বাবা তপন মজুমদার ও ছেলে আনন্দ মজুমদার দীর্ঘদিন ধরেই এলাকায় অসামাজিক কার্যকলাপ এবং এলাকার মহিলাদের উপর অত্যাচার করছেন বলে অভিযোগ। মহিলাদের উপর চড়াও হয়ে মাঝে মধ্যেই ধর্ষণ করার হুমকি দেন বাবা ও ছেলে। তাদের দুজনের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে শুক্রবার কোতোয়ালী থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখান মহিলারা। এই অভিযোগ নিয়ে জলপাইগুড়ি কোতোয়ালী থানার আইসি-র কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন তারা।