কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গের স্কুলগুলিতে শীঘ্রই প্রচুর শিক্ষক নিয়োগ করা হবে। মঙ্গলবার এমনই জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। রাজ্যের একাধিক স্কুলে স্কুলে ছাত্রছাত্রী ও শিক্ষক অনুপাত ঠিক নেই। রাজ্য সরকার সেই বিষয়টি উপলব্ধি করেছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। আর তাই সমস্যা মেটাতে এবার রাজ্যের স্কুলগুলিতে পর্যাপ্ত সংখ্যায় শিক্ষক নিয়োগ করা হবে বলে জানালেন শিক্ষামন্ত্রী।

এরাজ্যের স্কুলগুলিতে পড়ুয়া ও শিক্ষ-শিক্ষিকার সংখ্যার অনুপাতে অসামঞ্জস্য রয়েছে। দিনের পর দিন এই ব্যবস্থার ফলে পড়ুয়াদেরই অসুবিধার সম্মুখীন হতে হচ্ছে। এই বিষয়টি উপলব্ধি করেই এবার রাজ্যের স্কুলগুলিতে পর্যাপ্ত সংখ্যায় শিক্ষক নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। এমনই জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

এরই পাশাপাশি শিক্ষামন্ত্রী আরও জানিয়েছেন, শিক্ষার মানোন্নয়নে ছাত্র-শিক্ষক অনুপাতে ভারসাম্য অত্যন্ত জরুরি। ছাত্রছাত্রীদের সমস্যার কথা বুঝতে পেরেছে শিক্ষা দফতর। আর তাই সেই প্রয়োজন মেটাতে শিক্ষক নিয়োগ করা হচ্ছে। তবে পর্যায়ক্রমে এই প্রক্রিয়া হবে বলে জানা গিয়েছে শিক্ষা-দফতর সূত্রে।

শিক্ষার মানোন্নয়নে সরকার গত কয়েক বছরে একাধিক পদক্ষেপ করেছে বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। শিক্ষামন্ত্রীর দাবি, রাজ্যের মোট ১১১টি সরকারি ও সরকার অনুমোদিত স্কুলকে ইংরেজি মাধ্যমে উত্তীর্ণ করা হয়েছে।

আধুনিক যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে এবং পড়ুয়াদের সার্বিক উন্নয়নের লক্ষ্যেই রাজ্য সরকার সরকারি ও সরকার অনুমোদিত ১১১ স্কুলকে ইংরেজি মাধ্যমে উত্তীর্ণ করেছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। রাজ্যের তরফে স্কুল ও পড়ুয়ার মানোন্নয়নে এই পদক্ষেপ চলবে বলেও জানিয়েছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। স্কুলগুলির পড়ুয়াদের সাফল্যের দিকটি বিচার করে পরবর্তী ক্ষেত্রে ইংরেজি মাধ্যমের স্কুলের সংখ্যা আরও বাড়ানো হতে পারে বলেও জানান শিক্ষামন্ত্রী।