বালুরঘাটঃ লাল সবুজ ছেড়ে গেরুয়া শিবিরে যোগ দিলেন অসংখ্য শিক্ষক শিক্ষিকা। আজ বুধবার বালুরঘাটের রেনুকা লজে আয়োজিত বিজেপির অনুষ্ঠানে তাঁদের হাতে পদ্ম পতাকা তুলে দেন জেলা নেতৃত্ব। আগামী ৬ জুলাই বিজেপি সদস্যতা অভিযান কর্মসূচি উপলক্ষে এদিন প্রস্তুতি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। তাতে উপস্থিত ছিলেন জেলা সভাপতি শুভেন্দু সরকার প্রাক্তন সভাপতি তথা কেন্দ্রীয় কমিটির গৌতম চক্রবর্তী। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজ্য কমিটির সদস্য দীপ্তিমান সেনগুপ্ত। অঞ্চল থেকে জেলার সমস্ত কার্যকর্তা বৈঠকে অংশ নিয়েছিলেন।

প্রস্তুতি বৈঠক শেষে বালুরঘাট শহর এলাকার বিভিন্ন স্কুলের ২০ জন শিক্ষক ও শিক্ষিকা বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। তাঁদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দিয়ে বরণ করে নেন নেতৃত্ব।

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন আগেই জার্সি বদল করেছেন তৃণমূলের প্রাক্তন জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্র। তাঁর সঙ্গেই বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা পরিষদের সভাধিপতি সহ ১২ জন সদস্য এবং গঙ্গারামপুর ও বুনিয়াদপুর পুরসভার অধিকাংশ কাউন্সিলার। বিপ্লব মিত্রের বিজেপিতে যোগদান উত্তরবঙ্গে শাসকদল তৃণমূলে কাছে অবশ্যই বড় ধাক্কা। এই প্রসঙ্গে মুকুল রায় আগেই জানিয়ে ছিলেন যে, বিপ্লব মিত্রের জার্সি বদল রাজ্য-রাজনীতিতে রীতিমত ভূমিকম্প। যদিও তা মানতে নারাজ তৃণমূল নেত্রী অর্পিতা ঘোষ।

 

তাঁর পালটা যুক্তি ছিল, দলে থেকে বিজেপির হয়ে কাজ করেছেন। এমন লোক বেরিয়ে গেলে দল শুদ্ধ হবে বলে মনে করেন বালুরঘাট লোকসভার এই বিদায়ী সাংসদ। সবাই একজোট হয়ে তৃণমূলে কাজ করবে বলে আশা রেখেছিলেন অর্পিতা ঘোষ। কিন্তু তা যে হচ্ছে না তা কার্যত আবার পরিস্কার হয়ে গেল। বালুরঘাটে ভাঙন আটকাতে পারল না শাসকদল। এবার শাসকদলের শিক্ষক সংগঠনে ভাঙন ধরাল স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। তৃণমূল থেকে বহু শিক্ষাকর্মীকে দলে টেনে নিল বিজেপি।