file pic

কলকাতা: নতুন বছরের শুরু থেকেই রাজ্য সরকারি কর্মীদের জন্যে ষষ্ঠ বেতন কমিশন কার্যকর হয়েছে। সেই মতো ফেব্রুয়ারিতে বর্ধিত হারে বেতন পাওয়ার কথা রাজ্য সরকারি কর্মীদের। একই সুবিধা ভোগ করবেন পেনশনভোগীরাও। কিন্তু রাজ্য সরকারের অবসরপ্রাপ্ত কর্মী পেনশনভোগীদের একটা অংশ জানুয়ারি মাসে ষষ্ঠ বেতন কমিশনের সুপারিশের ভিত্তিতে বর্ধিত হারে পেনশন পাননি বলে অভিযোগ উঠেছে। ডিসেম্বর মাসের মতো একই হারে পেনশন পাওয়ার মেসেজ মোবাইলে এসেছে। যার ফলে তীব্র আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। যদিও বিষয়টি দ্রুত সমাধানের আশ্বাস সরকারের তরফে, এমনটাই সূত্রের খবর।

ওয়েষ্ট বেঙ্গল গভর্নমেন্ট পেনশনারস অ্যান্ড সিনিয়র সিটিজেনস ফোরামের সাধারণ সম্পাদক সমীর রঞ্জন মজুমদার বাংলা এক সংবাদপত্রকে জানিয়েছেন, রাজ্য সরকারের বহু পেনশনভোগী কর্মী তাঁদের সংগঠনের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে। সেখানে তাঁরা যে বর্ধিত টাকা পাননি সে বিষয়ে জানিয়েছেন। অন্যদিকে, ‘বর্তমান’ সংবাদপত্রকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে উন্নয়ন সংস্থা যুক্ত সংগ্রাম কমিটির সাধারণ সম্পাদক প্রাণবন্ধু নাগও জানিয়েছেন, কেএমডিএ বহু পেনশন প্রাপক একই হারে পেনশন পেয়েছেন। তাঁদের পেনশন বাড়েনি। এই পেনশন প্রাপকরা ২০১৬ সালের আগে অবসর নিয়েছেন। ফলে তাঁদের বর্ধিত পেনশন নিয়ে কোনও জটিলতা থাকার কথা নয় বলে সংগঠনগুলির অভিযোগ।

অন্যদিকে, ডিএ ছাড়া রাজ্য সরকারি কর্মীদের ডিএ দেওয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ কর্মীদের একাংশের। সূত্রের খবর, এতদিন বেসিক পে এর সঙ্গে হাউস রেন্ট, মেডিক্যাল এবং মহার্ঘভাতা যোগ করে মাস মাইনে পেতেন কর্মীরা। গত মাসেও ১২৫ শতাংশ হারে মহার্ঘভাতা পেয়েছেন কর্মীরা। এই ১২৫ শতাংশ (ডিএ) যা কেন্দ্রীয় সরকারী কর্মচারীদের বেতনের থেকে ১৭ % কম বলে অভিযোগ। পে স্লিপ থেকে বাদ রাখা হয়েছে ডি এর কলামটি। এর এরই প্রতিবাদ রাজ্য সরকারি কর্মীদের।

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব