শ্রীনগর : বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা মনোজ সিনহা জম্মু কাশ্মীরের লেফটেন্যান্ট গভর্নর হতে চলেছেন। সূত্রের খবর রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ পূর্ববর্তী লেফটেন্যান্ট গভর্নর গিরীশ চন্দ্র মুর্মুর পদত্যাগ পত্র গ্রহণ করেছেন।

এরপরেই রাষ্ট্রপতির দফতর থেকে একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হয়। এই বিবৃতিতে বলা হয়েছে জম্মু কাশ্মীরের লেফটেন্যান্ট গভর্নর হিসেবে নিযুক্ত করা হল মনোজ সিনহাকে। এবার থেকে তিনি এই দায়িত্ব সামলাবেন। ১৯৫৯ সালের পয়লা জুলাই জন্ম মনোজ সিনহার। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রথম পর্যায়ের ক্ষমতায় মনোজ সিনহা যোগাযোগ মন্ত্রী ছিলেন। এছাড়াও রেল মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী ছিলেন তিনি।

পূর্ব উত্তরপ্রদেশের গাজীপুর থেকে তিনবার জিতে সাংসদ হয়েছেন মনোজ সিনহা। ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনে বিএসপির আফজল আনসারির কাছে হেরে যান তিনি।

এদিকে, কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে কাশ্মীরের এক বছরের বর্ষপূর্তির দিনেই পদত্যাগ করলেন কাশ্মীরের প্রথম লেফটেন্যান্ট গভর্নর জিসি মুর্মু। সংবাদ সংস্থা এএনআই মারফত জানা গিয়েছে, বুধবারে পদত্যাগ করেছেন তিনি। গতবছরের অক্টোবরের ৩১ তারিখে জম্মু-কাশ্মীরের প্রথম লেফটেন্যান্ট গভর্নর হিসেবে দায়িত্ব নেন জিসি মুর্মু। এর আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যখন গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন সেই সময় তাঁর মুখ্য সচিবের দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। এছাড়াও বেশ কিছুদিন অর্থমন্ত্রকেরও একটি দায়িত্ব সামলেছেন মূর্মু।

মূর্মু কাশ্মীরের লেফটেন্যান্ট গভর্নর পদ থেকে সরে যাওয়ায় শূন্যস্থানে কাউকে বসাতে সক্রিয় ছিল জম্মু কাশ্মীর প্রশাসন। এব্যাপারে দিল্লির সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হতে পারে বলে জানিয়ে ছিলেন এক আধিকারিক। অন্যদিকে জল্পনা ছিল চলতি সপ্তাহেই অবসর নিতে পারেন ভারতের সিএজি বা কন্ট্রোলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেলের পদের দায়িত্বে থাকা রাজীব মেহঋষি। তাঁর ওই স্থানে জিসি মুর্মু বসবেন কিনা, এসম্পর্কে এখনও কিছু জানা যায়নি।

মন্ত্রি পরিষদ সচিবালয়ের এক সিনিয়র আমলা জানিয়েছেন, রাজীব মেহঋষির ৮ অগস্ট ৬৫ বছর হবে। সে কারণেই তাঁর জায়গায় অন্য কারোর বসার সম্ভাবনা রয়েছে।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও