চণ্ডীগড়: তাড়াহুড়ো করে রবিবারে হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন মনোহর লাল খট্টর। সঙ্গে উপমুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন দুশন্ত চৌটালা। এই নিয়ে দ্বিতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারে বসবেন খট্টর৷

হরিয়ানায় নির্বাচনের ফলপ্রকাশ হতেই দেখা গিয়েছিল থমকে গিয়েছে পদ্মের অশ্বমেধের ঘোড়া। আর কালো ঘোড়া হিসেবে উঠে এসেছে চৌটালার জেজেপি। আর তাই রাজ্যতে ক্ষমতায় থাকার জন্য জেজেপির সঙ্গেই হাত মেলাতে হয়েছিল বিজেপিকে। শপথ গ্রহণের সময়ে বিজেপির এই প্রবীণ নেতা সাংবাদিকদের সামনে জানান তাঁর সরকার হচ্ছে স্বচ্ছ এবং পরিষ্কার। তবে মহারাষ্ট্রের মত হরিয়ানাতে যে সরকার গঠনের ক্ষেত্রে বিজেপিকে বেশ অস্বস্তির মুখে পড়তে হচ্ছে তা বোঝা গিয়েছে।

নির্বাচনের ফল প্রকাশের পরে দেখা গিয়েছিল ৯০ টি আসনের মধ্যে ৪০টিতে জয় পেয়েছে গেরুয়া শিবির। আর সেখানেই ধাক্কা খেয়েছিল পদ্মফুল। কেননা সংখ্যাগরিষ্ঠতার দিক থেকে তাদের দরকার ছিল আরও ৬টি আসন। আর তা নিয়েই বেশ সমস্যার মুখে পরে তারা৷

অবশেষে জেজেপির সঙ্গে জোট করে হরিয়ানাতে নতুন সরকার গঠন করে বিজেপি। পুনরায় মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন খট্টরই। তবে নির্বাচনের পরে এই রাজ্যে বিজেপির আসন যে টলমল তা বোঝা গিয়েছে৷