স্টাফ রিপোর্টার, বনগাঁ: মতুয়া মহাসংঘের প্রতিষ্ঠাতা শ্রী হরিচাঁদ ঠাকুর, গুরুচাঁদ ঠাকুরকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় কুরুচিকর পোস্টের বিরোধিতায় গর্জে উঠলেন মহাসংঘাতিপতি মঞ্জুলকৃষ্ণ ঠাকুর। অভিযুক্তকে অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন তিনি। তা না হলে আমরণ অনশনে বসার হুমকি দিয়েছেন মঞ্জুলকৃষ্ণ ঠাকুর।

মহাসংঘাধিপতি মঞ্জুলকৃষ্ণ ঠাকুর একটি প্রেস বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছেন, কুলদীপ চক্রবর্তী নামে আগরতলার যে যুবক ফেসবুকে অশ্লীল, অসভ্য পোস্ট করে চলেছেন, তা খুবই নিন্দনীয়। অল ইন্ডিয়া মতুয়া মহাসংঘের পক্ষ থেকে এই জঘন্য ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। অভিযুক্তকে গ্রেফতারের দাবিতে শনিবার বনগাঁর ঠাকুরবাড়িতে মূল মন্দিরের সামনে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন মতুয়া ভক্তরা।

মতুয়া মহাসংঘের প্রতিষ্ঠাতাদের উদ্দেশে সোশ্যাল মিডিয়ায় কুরুচিকর পোস্ট নিয়ে আগেই ফেসবুকে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন সুব্রত ঠাকুর। সাংসদ শান্তনু ঠাকুরের ভাই কয়েকদিন আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছিলেন, বেশ কয়েকদিন ধরে মতুয়া মহাসংঘের মূল প্রতিষ্ঠাতা শ্রী শ্রী হরিচাঁদ ঠাকুর এবং গুরুচাঁদ ঠাকুরকে নিয়ে কুৎসা রটানো হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। “এটা অত্যন্ত গর্হিত কাজ। মতুয়াদের মধ্যে ভাঙন ধরাতে কোনও দুষ্ট চক্র এই কাজ করছে।”

তিনি জানিয়েছেন, যাঁরা এধরনের অপচেষ্টার পিছনে রয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে আইনি পথে লড়াই চলবে। সোশ্যাল মিডিয়ার প্রোফাইল পরীক্ষা করে ইতিমধ্যেই গাইঘাটা থানায় এফআইআর দায়ের করা হয়েছে বলে নিজের পোস্টে জানান সুব্রত ঠাকুর।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ