কলকাতা: করোনা ভাইরাস নিয়ে বিশ্বজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। অন্যান্য অনেক দেশের মতোই করোনা থাবা বসিয়েছে ভারতে। বেড়ে চলেছে আক্রান্তের সংখ্যা। চিন্তিত গোটা দেশ। ক্রমেই আতঙ্ক বাড়াচ্ছে মারণ করোনা। সামাজিক দূরত্বে মধ্যে রয়েছেন সকলেই। সরকারি নিষেধ মেনে ঘরবন্দি দুই সাহিত্যিক এবার করোনা সচেতনতায় ভিডিও বার্তা পোস্ট করলেন।

নিজের ফেসবুক দেওয়ালে এক ভিডিও বার্তায় কবি মন্দাক্রান্তা সেন জানিয়েছেন, “করোনা ভাইরাসের আক্রমণ ও সংক্রমণের আতঙ্কে আমরা গভীর দুশ্চিন্তার মধ্য দিয়ে দিন কাটাচ্ছি। এই সময়ের হাত থেকে আমরা মুক্তি পাবে কি করে, রক্ষা পাবে কি করে সে কথা সঠিকভাবে এখনও কেউ জানি না। এই ভাইরাস ধনি দরিদ্র নারী পুরুষ জাতপাতের কোন ভেদাভেদ মানে না।”

তিনি আরও জানিয়েছেন, “এখন নিজেকে সুস্থ রাখার একমাত্র উপায় বাড়ি থেকে না বেরনো। যারা অত্যাবশ্যক পেশার সঙ্গে যুক্ত তাদেরও সাধ্যমতো সাবধানতা অবলম্বন করা জরুরি। সরকার ও চিকিৎসকের নির্দেশ অক্ষরে অক্ষরে পালন করুন। নিজের চারপাশের পরিছন্নতা বজায় রাখুন। সজাগ থাকুন। সতর্ক থাকুন। সুস্থ থাকুন। আশা করি, মানব জাতির অস্তিত্ব রক্ষার লড়াইয়ে আমরা জয়ী হব।”

অন্যদিকে ভিডিও বার্তার মধ্যে দিয়ে জনসচেতনতার বার্তা দিলেন জনপ্রিয় সাহিত্যিক স্মরণজিৎ চক্রবর্তী, “করোনা ভাইরাসের জন্য সারা পৃথিবীতে যা অবস্থা তৈরি হয়েছে উদ্বেগজনক এবং শোচনীয় তা আমরা সবাই জানি। আমাদের এখানে যেন সেরকম অবস্থা তৈরি না হয়, সেজন্য সরকারের পক্ষ থেকে যে গাইড লাইন দেওয়া হচ্ছে বা মেডিকেল প্র্যাকটিশনার যা বলছেন সেসব মেনে চলুন। বলা হচ্ছে যে একসঙ্গে প্রচুর লোক জমায়েত হবেন না কোন জায়গায়। অন্যান্য যাই বলছেন তারা, সেসব মেনে চলুন। যে স্টেজে দাঁড়িয়ে আছি আমরা আমাদের সবাইকে একসঙ্গে সতর্ক থাকতে হবে এবং নিয়ম মেনে চলতে হবে।”

করোনা মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের নানা পদক্ষেপ তিমধ্যেই প্রশংসিত হয়েছে। বাজারে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের জোগান ঠিক আছে কিনা তা খতিয়ে দেখতে শহরের বাজর পরিদর্শন করতে দেখা গিয়েছে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে। শুধু তাই নয়, মাস্ক বিলি করতেও দেখা গিয়েছে তাঁকে। ফেসবুকে ঘুরছে মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে লেখা রাজ্যবাসীর প্রশংসা সূচক নানা পোস্ট। নিজেদের পাঠক ও সাধারণ মানুষের উদ্দেশে সরকারি নির্দেশ মেনে চলার পরামর্শ দিলেন দুই সাহিত্যিক।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।