দুবাই: টি-২০ বিশ্বকাপের আগে আইসিসি টি-২০ ব়্যাংকিংয়ে বড়সড় লাফ স্মৃতি মন্ধনার। তবে সদ্য সমাপ্ত ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে ব্যর্থতার জেরে আইসিসি রেংকিংয়ে পিছিয়ে যেতে হল জেমিমা রডরিগেজকে। ক্যাপ্টেন হরমনপ্রীত কউর অবশ্য ধরে রেখেছেন নিজের জায়গা। বোলারদের ব্যক্তিগত ব়্যাংকিং তালিকায় প্রথম দেশের বাইরে ছিটকে গেলেন পুণম যাদব।

মহিলা টি-২০ বিশ্বকাপের প্রস্তুতি হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ত্রিদেশীয় টি-২০ সিরিজে অনবদ্য ফর্মে ছিলেন ভারতের তারকা ওপেনার স্মৃতি মান্ধনা। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ফাইনালেও তিনি দুরন্ত হাফ-সেঞ্চুরি করেন। যদিও দল হেরে বসায় ব্যর্থ হয় তাঁর লড়াকু ইনিংস। ভারত ট্রফি না জিতলেও ধারাবাহিক পারফর্ম্যান্সের স্বীকৃতি পেলেন মন্ধনা। আইসিসির টি-২০ ব্যাটারদের তালিকায় তিন ধাপ উঠে এসে চার নম্বরে পৌঁছে গেলেন তিনি।

ত্রিদেশীয় সিরিজে একেবারেই ছন্দে ছিলেন না জেমিমা রডরিগেজ। যার প্রভাব পরে তাঁর ব্যক্তিগত ব়্যাংকিংয়ে। জেমিমা এই মুহূর্তে ব্যাটারদের তালিকার সাত নম্বরে অবস্থান করছেন। ত্রিদেশীয় সিরিজে তেমন একটা নজর কাড়তে না পারলেও হরমনপ্রীত কউর ব্যাটারদের তালিকার নবম স্থান ধরে রেখেছেন।

বোলারদের তালিকায় বেশ খানিকটা পিছিয়ে যেতে হয়েছে পুণম যাদবকে। আগের রেংকিং তালিকায় পুণম ছিলেন আইসিসির ছ’নম্বর মহিলা টি-২০ বোলার। সদ্য প্রকাশিত তালিকায় ছয় ধাপ পিছনে হেঁটে তিনি চলে গিয়েছেন ১২ নম্বরে।

ব্যাটারদের তালিকার শীর্ষে রয়েছেন নিউজিল্যান্ডের সুজি বেটিস। চার ধাপ উঠে এসে সোফি ডিভাইন দু’নম্বরে চলে এসেছেন। তিনে রয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার বেথ মুনি। মন্ধনার পিছনে পাঁচে রয়েছেন মেগ ল্যানিং।

বোলারদের প্রথম দশে ঢুকে পড়েছেন এলিস পেরি। চার ধাপ উঠে এসে তিনি রয়েছেন সাত নম্বরে। সোফি ডিভাইন অল-রাউন্ডারদের তালিকায় এক নম্বরে উঠে এসেছেন।