লখনউ: বাইরে তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি৷ রাজনৈতিক সংঘর্ষের জেরে সেই পারা চড়ল আরও চড়চড়িয়ে৷ রবিবার সকালে ভোট চলাকালীন বুথকেন্দ্রের বাইরে হাতাহাতি ও পুলিশের লাঠি চার্জের জেরে চরম উত্তেজনা ছড়াল যোগীর রাজ্যে৷ ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের জৌনপুরের শাহগঞ্জে৷

‘জুতা পালিশ’কে কেন্দ্র করে ঝামেলার সূত্রপাত৷ হাতের কাছে বিজেপির পতাকা পেয়ে তাই দিয়ে জুতো পরিস্কার করেন এক ব্যক্তি৷ পাশ দিয়েই যাচ্ছিলেন এক বিজেপি সমর্থক৷ নজরে পড়তেই ওই ব্যক্তিকে গালিগালাজ করতে শুরু করেন৷ তাদের ঝগড়া দেখে আশেপাশের লোকজন জমায়েত হতে শুরু করে৷ চলে আসেন অন্যান্য বিজেপি কর্মী ও সমর্থকরাও৷

ধীরে ধীরে উত্তেজনা বাড়তে শুরু করে৷ অভিযোগ, উত্তেজনার বশে বিজেপি কর্মীরা ওই ব্যক্তির উপর চড়াও হয়৷ তাকে যথেচ্ছ মারধর করে৷ বুথকেন্দ্রের বাইরে বিশৃঙ্খলা দেখে সেখানে থাকা পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনী ছুটে আসে৷ বুঝিয়ে তাদের শান্ত করার চেষ্টা করেন৷ কিন্তু বিফল হয়ে শেষ পর্যন্ত লাঠি চালাতে হয় নিরাপত্তা বাহিনীকে৷ পুলিশের তাড়া খেয়ে পরি কি মরি দৌড় লাগান বিজেপি কর্মীরা৷

পরে পুলিশ জানায়, শাহগঞ্জের ৩৬৯ নম্বর বুথের বাইরে ঘটে ঘটনাটি৷ গাছে ঝুলতে থাকা বিজেপির পতাকা দিয়ে জুতো পরিস্কার করেন এক ব্যক্তি৷ সেটা দেখার পরই বিজেপি সমর্থকেরা সাময়িক বিশৃঙ্খলা ঘটায়৷ তবে কিছুক্ষণের মধ্যে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের মধ্যে চলে আছে৷ এই ঘটনায় ভোটে কোনও বাধার সৃষ্টি হয়নি৷