কলকাতা: সব কিছু পরিকল্পনা মাফিক এগলে চলতি বছরেই যুবভারতী ক্রিড়াঙ্গনে ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে ম্যাচ খেলতে পারে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড৷ প্রিমিয়র লিগ জায়ান্টদের তরফে প্রাক মরশুম প্রস্তুতি ম্যচের জন্য সবুজ সংকেত পাঠানো হয়েছে লাল-হলুদ শিবিরে৷

ক্লাবের শতবর্ষ উদযাপনে চলতি মরশুমে চমক দিতে চাইছিলেন ইস্টবেঙ্গল কর্তারা৷ ক্লাবের মাইলস্টোন বছরকে স্মরণীয় করে রাখতে ইউরোপের প্রথমসারির কোনও ক্লাবকে যুবভারতীতে হাজির করাতে বদ্ধপরিকর ছিল লাল-হলুদ কর্তৃপক্ষ৷ সেই মতো আলোচনা চালানো হচ্ছিল ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড, লিভারপুল, বায়ার্ন মিউনিখ ও পিএসজি’র সঙ্গে৷

আরও পড়ুন: জুভেন্তাসের জার্সিতে হাফসেঞ্চুরি রোনাল্ডোর

গত বছর নভেম্বরে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের চার সদস্যের প্রতিনিধি দল ঘুরে গিয়েছে শহরে৷ ইস্টবেঙ্গল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক ছাড়াও যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনও পরিদর্শন করেছেন ম্যান ইউয়ের প্রতিনিধিরা৷ সব কিছু দেখে শুনে প্রীতি ম্যাচের খেলতে শেষমেশ কলকাতায় আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেড ডেভিলসরা৷

প্রাথমিক কথাবার্তা এগলেও সরকারিভাবে দিন-ক্ষণ স্থির হয়নি এখনও৷ শোনা যাচ্ছে আগামী ২৪ অথবা ২৬ জুলাই খেলা হতে পারে ম্যাচটি৷ ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের তরফে ম্যান ইউয়ের সম্মতি জানানোর কথা স্বীকার করে নেওয়া হলেও ম্যাচ নিয়ে নিশ্চিত কিছু জানানো হয়নি৷ মার্চেই এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে৷ আসলে রেড ডেভিলসদের শহরে আনতে গেলে বিপুল পরিমাণ অর্থ দিতে হবে ইস্টবেঙ্গলকে৷ দু’দফায় সেই অর্থ প্রদানের বিষয়টিই এখন আলোচনার মুখ্য বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে৷

আরও পড়ুন: ফের বিশ্বকাপ কোয়ালিফায়ারের দায়িত্ব পেতে পারে যুবভারতী

তবে লাল-হলুদ সমর্থকরা আশাবাদী যে জুলাইয়ে ঐতিহাসিক ম্যাচের সাক্ষি থাকতে পারবেন তারা৷ ক্লাবের তরফে অবশ্য এটা নিশ্চিত করা হয়েছে যে, শহরে এলে ম্যান ইউ তাদের প্রথম সারির দল নিয়েই মাঠে নামবে ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে৷

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প