মালদহ: পাওনা টাকা চাওয়ায় ব্যবসায়ীকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে খুনের চেষ্টা ও মারধরের অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে৷ ঘটনাটি ঘটেছে মালদহের মোথাবাড়ি থানার কাশিম বাজার এলাকায়৷ গুরুতর জখম অবস্থায় ওই ব্যবসায়ী বর্তমানে মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঘটনায় মোথাবাড়ি থানায় অভিযোগ জানানো হয়েছে৷ তদন্তে নেমেছে পুলিশ। তবে ঘটনার পর থেকে পলাতক অভিযুক্ত।

জানা গিয়েছে, আহত ব্যবসায়ীর নাম মাহেদুল শেখ (৩৮)। বাড়ি মোথাবাড়ি থানার রথবাড়ি পঞ্চায়েতের বালুয়াচড়া লক্ষ্মীপুর গ্রামে। বাড়িতে তাঁর আখ মিল রয়েছে। এলাকার কৃষকেরা তাঁর মিল থেকে আখের রস বার করে নিয়ে যায়। পার্শ্ববর্তী গ্রাম সাদিপুর বরকট্টাবাদের বাসিন্দা পালানু শেখ প্রায় তিন বছর আগে মাহেদুলের আখ মিল থেকে রস বার করে নিয়ে যায়। সেই টাকা এখনও শোধ দেয়নি। প্রায় ত্রিশ হাজার টাকা পায় মাহেদুল।

কাশিমবাজারে দোকানে চা খাচ্ছিল অভিযুক্ত পালানু শেখ। সেই সময় টাকা চায় মাহেদুল। দুই জনের মধ্যে বচসা বাধে। সেই সময় পালানু সঙ্গে থাকা চাকু বার করে এলোপাথাড়ি আঘাত করে মাহেদুলকে। বুকে ও কোমরে একাধিক আঘাত লাগে। তাকে বাঁচাতে গিয়ে জখম হয় এক স্থানীয় ব্যক্তি। ঘটনার চিৎকার চেঁচামেচিতে অবস্থা বেগতিক দেখে অভিযুক্ত পালিয়ে যায়।

স্থানীয়রা গুরুত্বর অবস্থায় মাহেদুলকে উদ্ধার করে বাঙ্গীটোলা হাসপাতালে নিয়ে যায়। তার অবস্থার অবনতি হতে থাকলে চিকিৎসকরা তাকে মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে স্থানান্তরিত করে। মোথাবাড়ি থানায় পালানু শেখের নামে অভিযোগ দায়ের করেছে আহতর পরিবার। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।