স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: শ্বশুর বাড়ির সামনেই গলার নলি কেটে খুন করা হল জামাইকে। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনা জেলার নিমতা থানা এলাকার জহরপল্লীতে।

মৃত জামাইয়ের নাম মৃন্ময় মণ্ডল। ৩২ বছর বয়সী এই ব্যক্তির মৃত্যুর ঘটনায় খুব স্বাভাবিকভাবেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে সমগ্র এলাকায়। এই ঘটনার তদন্তে নেমে নিমতা থানার পুলিশ মৃতের স্ত্রী সহ শ্বশুর বাড়ির আত্মীয়দের জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার গভীর রাতে। পুলিশ সূত্রের খবর, মৃন্ময় মণ্ডলের বাড়ি উত্তর ২৪ পরগনার হাবড়া এলাকায়। সে কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে চাকরি করত। বেশ কয়েক মাস ধরে সে শ্বশুর বাড়িতে ঘর জামাই হিসেবেই থাকছিল। বুধবার রাতে সে শ্বশুর বাড়ির সামনেই রাস্তার উপরে দাঁড়িয়ে মোবাইল ফোন দেখছিল, সেই সময় একটি বাইকে তিনজন দুষ্কৃতী এসে মৃন্ময়ের গলায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে এবং নলি কেটে দেয়।

ঘটনার পর ওই দুষ্কৃতীরা বাইকে উঠে পালিয়ে যায়। স্থানীয় বাসিন্দারা দ্রুত রক্তাক্ত অবস্থায় মৃন্ময়কে কামারহাটির এক বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে আসলে ডাক্তাররা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে। এই ঘটনার পর মৃতের দেশের বাড়িতে পুলিশ খবর দেয়।

স্থানীয় সূত্রের জানা গিয়েছে, বছর পাঁচেক আগে মৃন্ময় মণ্ডলের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে বেশীরভাগ সময়ই মৃন্ময় শ্বশুর বাড়িতেই থাকত। স্ত্রীর পরকীয়া সম্পর্ক আছে বলে মৃন্ময় স্ত্রীকে সন্দেহ করত। এই নিয়ে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে বিবাদ ও লেগেই থাকত বলে স্থানীয় বাসিন্দাদের সূত্রের খবর। নিমতা থানার পুলিশ গোটা ঘটনার তদন্তে নেমেছে। প্রাথমিক ভাবে পুলিশেরও অনুমান ত্রিকোণ প্রেমের জেরে এই খুনের ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। অভিযুক্ত দুষ্কৃতীদের খুঁজছে পুলিশ।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV