লন্ডন: বিভিন্ন সময় একাধিক অদ্ভুত ঘটনা সামনে আসাতে অবাক হয় মানুষজন। অনেক সময় প্রশ্ন ওঠে সেই সকল প্রশ্নের স্বাভাবিকতা নিয়েও। তবে ইতিমধ্যে সামনে এসেছে এক অদ্ভুত ঘটনা যা অবাক করেছে সকলকেই।

ইংল্যান্ডে মুরগীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপনের দায়ে গ্রেফতার করা হয়েছে এক ব্যক্তিকে। ইতিমধ্যে অভিযুক্তকে সাজা ঘোষণা করেছে সেখানকার আদালত। তবে তার মধ্যেও সামনে এসেছে এক অদ্ভুত তথ্য। ওই সম্পূর্ণ ঘটনাটি ক্যামেরা বন্দী করেছিলেন অভিযুক্ত ব্যক্তির স্ত্রী।

অভিযুক্ত ব্যক্তি ৩৭ বছর বয়সী রেহান বেইগ। আদালত ইতিমধ্যেই তাঁকে কড়া শাস্তি দিয়েছে এই ঘটনার পরে। সংবাদ মাধ্যমের তরফে জানা গিয়েছে এই ঘটনা রেকর্ড করে রাখার জন্য তারা ব্যবহার করেছিলেন গো প্রো। নিজেদের বাড়ির বেসমেন্টে এই ঘটনা ঘতেছিল বলেও জানা গিয়েছে।

অভিযুক্ত ব্যক্তির বিরুদ্ধে শাস্তি ঘোষণা কড়া হলেও রেহাই পেয়েছেন তার স্ত্রী। আদালতের তরফে জানা গিয়েছে স্ত্রীর সঙ্গে মিলনের সঙ্গে সঙ্গেই ওই ব্যক্তি মুরগীর সঙ্গে মিলিত হয়েছিলেন। পরে ওই দুই মুরগী মারা যায় বলেও জানা গিয়েছে। যার জেরেই অভিযুক্ত ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ওই ব্যক্তির স্ত্রীর নাম হালিমা বেগ।

৩৮ বছর বয়সী ওই মহিলা আদাআলতে নিজের দোষ স্বীকার করেছেন। তবে জানা গিয়েছে তিনি বাড়িতে বধু নির্যাতনের শিকার।

পাশপাশি অভিযুক্ত কে কড়া সমালচনা করেছেন আদালত। এমনকি তার মানসিক স্বাস্থ্য নিয়েও প্রশ্ন তোলা হয়েছে। গত ২০১৯ সালের ৯ জুলাই ওই বাড়ি থেকে বেশ কিছু জিনিস বাজেয়াপ্ত কড়া হয়েছিল। আর তারপরেই এই বিষয়টি সকলের সামনে আসে। পুলিশ ওই বাড়ি থেকে কম্পিউটার, ল্যাপটপ, ফোন সহ বেশ কিছু জিনিস বাজেয়াপ্ত করেছিল। আর তারপরেই এই বিষয়টি সামনে এসেছিল।

জেলবন্দি তথাকথিত অপরাধীদের আলোর জগতে ফিরিয়ে এনে নজির স্থাপন করেছেন। মুখোমুখি নৃত্যশিল্পী অলোকানন্দা রায়।