রায়পুর: ভয়ঙ্কর! লাইভ শো চলাকালীন গোখরোর ছোবলে মৃত্যু হল এক ব্যক্তির। বুধবার এই রোমহর্ষক ঘটনাটি ঘটেছে ছত্তিসগড়ের কাঙ্কের জেলার পানখাজুর গ্রামে।

জানা গিয়েছে, এদিন সাপের খেলা দেখাচ্ছিলেন সাপুড়ে বেনীরাম। সাপের খেলা সামনে পেয়ে ভিড় জমে যায়। এই ভিড়ের জনতায় ছিলেন বছর সাইত্রিশের সুরেশ মণ্ডল। হঠাৎই বেনীরামের কাছে খেলা দেখাবার আবদার জুড়ে বসেন সুরেশ। সাপের ঘাড় ধরে খেলা দেখানোর অনুমতি চান তিনি। অবশেষে তাকে অনুমতি দিয়ে দেন বেনীরাম। খেলা দেখাতে শুরু করেন সুরেশ। তখনই সুযোগ বুঝে সাপটি ছোবল দেয় সুরেশকে। গোখরোর ছোবলে মৃত্যুর মুখে ঢলে পরেন সুরেশ। এর আগেও এই ধরণের খেলা দেখিয়েছেন সুরেশ।

ঘটনা এখানেই থেকে ছিল না। বেনীরাম উপস্থিত জনতাকে আতঙ্কিত হতে বারণ করেন। বলেন বিশেষ মন্ত্রোচ্চারণে সুরেশের দেহ থেকে বিষ বেরিয়ে যাবে। উপস্থিত জনতা যখন তাকে মন্ত্রোচ্চারণের মাধ্যমে সুরেশের দেহ থেকে বিষ বের করার অনুমতিও দিয়ে দেন অচিরেই! শুরু হয় মন্ত্রপাঠ। কিন্তু কিছুতেই সুস্থ্ হয়ে উঠছিলেন না সুরেশ। তার শারীরিক অবস্থা বেগতিক হচ্ছিল ক্রমশ। এই ভিডিও আবার ভাইরাল হয়েছে নেট দুনিয়ায়। তখন তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কিন্তু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া মাত্রই তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। তারা জানান সুরেশের সারা দেহে বিষ ছড়িয়ে পড়েছে।

এরপরই সাপুড়ে বেনীরামকে গণপিটুনি দেয় জনতা। তারপর তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। তাকে হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে আইপিসির যথাযথ ধারায় মামলা রুজু হয়েছে। এই খবর নিশ্চিত করেছেন পাঙ্খাঞ্জুর স্টেশনের হাউজ অফিসার শরদ দুবে।