স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী ও বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুর পুরসভার চেয়ারম্যান শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের অফিসে একটি ধারালো ছুরি সহ ঢুকে পড়ার অভিযোগে এক যুবককে গ্রেফতার করল পুলিশ। ধৃত ব্যক্তির নাম মিলন দাস। সে বিষ্ণুপুর শহরের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কুঁদকুঁদা বাজারের বাসিন্দা।

জানা গিয়েছে, প্রাক্তন মন্ত্রী ও পুরসভার চেয়ারম্যান শ্যামাপ্রসাদ বাবু অন্যান্য দিনের মতো সোমবার রাতেও বিষ্ণুপুর থানা গোড়া এলাকার তাঁর বাড়ির অফিস ঘরে বসে এলাকার মানুষের সঙ্গে কথা বলছিলেন। সেই সময় এক যুবক সরাসরি শ্যাম মুখোপাধ্যায়ের কাছে পৌঁছাতে চেষ্টা করে। এই ঘটনায় তাঁর গৃহরক্ষীর সন্দেহ হওয়ায় তাকে আটক করা হয়৷ শুরু হয় তল্লাশি।

আরও পড়ুন : ‘ইয়েস স্যার’ বাদ! মোদীর রাজ্যে পড়ুয়ারা বলবে ‘জয় হিন্দ’

তল্লাশির সময় ওই যুবকের প্যান্টের পিছন থেকে লোহার পাইপের ভিতরে একটি ধারালো ছুরি উদ্ধার হয়। এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। ঐ আততায়ী শ্যাম মুখোপাধ্যায়কে খুন করার উদ্দেশ্যেই এসেছিল বলে অনেকে মনে করছেন। বিষ্ণুপুর থানার পুলিশ ঐ যুবককে গ্রেফতার করার পাশাপাশি ঐ ছুরিটিও উদ্ধার করেছে।

পরে শ্যাম মুখোপাধ্যায় ঘটনার বিবরণ দিয়ে বলেন, এই ঘটনায় তিনি যথেষ্ট আতঙ্কিত। দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে তাঁর সঙ্গে কোনও দিন এই ধরণের ঘটনা ঘটেনি। রাজ্যে মন্ত্রী থাকাকালীন সময়েও তিনি দেহরক্ষী ছাড়াই নিজে স্কুটি চালিয়ে শহরে ঘুরেছেন। এই ঘটনায় বিজেপি যোগ রয়েছে সন্দেহ করে পুলিশি তদন্তে আস্থা রাখছেন বলেও জানিয়েছেন। পুলিশের পক্ষ থেকে ওই যুবককে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে বলে পুলিশ সূত্রে জানানো হয়েছে।