চণ্ডীগড়: বাসন্তীকে বিয়ে করার জন্য তাঁর মাসিকে রাজি করাতে জলের ট্যাঙ্কের উপর চড়ে বসেছিল বীরু। ধর্মেন্দ্র-অভিতাভ বচ্চন অভিনীত ‘শোলে’ ছবির সেই দৃশ্যেই এবার দেখা গেল পাঞ্জাবের মৌড় শহরে। জলের ট্যাঙ্কের উপর চড়ে এক ব্যক্তি চিৎকার করছেন, ‘সরকার, আমি এখনও বেঁচে আছি!’

দৈনিক ভাস্করের প্রতিবেদন অনুযায়ী, দুই বছর আগে সুখপাল কৌর রাজ্য সরকারের ‘শগুন প্রকল্পে’ তাঁর দু’মেয়েকে বিয়ে দেওয়ার জন্য স্বামী বৃষভনকে ‘মৃত’ বলে ঘোষণা করেন। স্বামীর উপর ক্রুদ্ধ হয়ে বছর দুয়েক আগেই শ্বশুরবাড়ি ছেড়েছিলেন সুখপাল।

সুখপাল তাঁকে ‘মৃত’ বলে ঘোষণা করে প্রকল্পের টাকার জন্য আবেদন করেছে, তা শুনেই রাগে ফেটে পড়েন বৃষভন। এরপরই নিজের জীবিত থাকার তথ্যপ্রমাণ দিয়ে প্রকল্পের টাকা বন্ধের দাবি জানান তিনি। স্থানীয় মৌড় পুলিশ স্টেশনে একটি দরখাস্ত করে ন্যায় বিচারের আর্জি জানান। স্ত্রীর বিরুদ্ধে প্রতারণা এবং জালিয়াতির অভিযোগ এনে তাঁর সন্তানদের নিরাপত্তার আর্জিও জানান।

কিন্তু,পুলিশকে বলেও কোনও ফল না পেয়ে পুলিশি নিষ্ক্রিয়তার বিরুদ্ধেই এবার জলের ট্যাঙ্কে উঠে চিৎকার করে তাঁর জীবিত থাকার ‘প্রমাণ’ দিতে থাকেন বৃষভন। জলের ট্যাঙ্কের উপরে উঠে চিৎকার করে বলতে থাকেন, ‘সরকার, ম্যায় আভি জিন্দা হু’, অর্থাৎ, সরকার আমি এখনও বেঁচে আছি। আর এই কাণ্ডকারখানার সঙ্গে কালজয়ী সিনেমার একটি দৃশ্যের মিল খুঁজে পাচ্ছেন অনেকেই।

বৃষভন জলের ট্যাঙ্কে ওঠার কিছু পরেই সেখানে হাজির হয় স্থানীয় থানার পুলিশ। তাঁর অভিযোগ খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়ে নিরস্ত করা হয় বৃষভনকে। ট্যাঙ্ক থেকে নেমে আসেন তিনি। হাঁফ ছেড়ে বাঁচেন পুলিশ আধিকারিকেরা।

পপ্রশ্ন অনেক: একাদশ পর্ব

লকডাউনে গৃহবন্দি শিশুরা। অভিভাবকদের জন্য টিপস দিচ্ছেন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ।