কলকাতা:  শহরে ফের আক্রান্ত পুলিশ। বাইপাসে বেপরোয়া বাইক আরোহীদের আটকাতে গেলে মত্ত অবস্থায় ট্রাফিক সার্জেন্টকে লাথি মারার অভিযোগ।
শুক্রবার স্বাধীনতা দিবসের আগে নাকা চেকিং চালাচ্ছিলেন পূর্ব যাদবপুর ট্রাফিক গার্ডের সার্জেন্ট পূর্ণেন্দুনারায়ণ বিবেকানন্দ রায়। পুলিশের দাবি, নিজেদের মধ্যে রেষারেষি করতে করতে রুবির দিকে যাচ্ছিল দু’টি বাইক। সেসময় ছিটকে পড়েন এক বাইক আরোহী।
এরপর  বাইক দু’টি আটক করেন ট্রাফিক সার্জেন্ট। অভিযোগ, কাগজপত্র চাইলে সার্জেন্টের ওপর চড়াও হয় দুই বাইক আরোহী। তাঁকে লাথি মারা হয় বলে অভিযোগ। প্রদীপ পট্টনায়ক একজনকে ধরতে পারলেও, বাইক ফেলে অটোয় চড়ে চম্পট দেয় অপর আরোহী মুন্না পাণ্ডে। পুলিশ সূত্রে খবর, মুন্না কসবার কুখ্যাত দুষ্কৃতী। তার বিরুদ্ধে খুনের মামলা রয়েছে। অভিযোগ, মুন্নাই ওই সার্জেন্টকে লাথি মারেন। এমনকী সে সার্জেন্টকে খুন এবং তাঁর পরিবারকে অপহরণের হুমকিও দেওয়া বলেও অভিযোগ। অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে সার্ভে পার্ক থানার পুলিশ। আগেও শহরে একাধিকবার আক্রান্ত হতে হয়েছে পুলিশকে। এরপরেও কড়া পদক্ষেপ নেবেন না লালবাজারের আধিকারিকরা? প্রশ্ন শহরবাসীর।