বারাকপুর: গৃহবধূকে তার ঘরে ঢুকে ধর্ষনের চেষ্টার অভিযোগে গ্রেফতার করা হল স্থানীয় এক যুবককে। ধৃত ওই যুবকের নাম তাপস দে ওরফে পাপাই। রবিবার রাতে চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার বীজপুর থানার অন্তর্গত হালিশহরের দাসপাড়া এলাকায়।

নির্যাতিতা গৃহবধূর অভিযোগের ভিত্তিতে পাড়া প্রতিবেশীরা অভিযুক্ত তাপসকে ধরে গণ ধোলাই দিয়ে বীজপুর থানার পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

নির্যাতিতা গৃহবধূর অভিযোগ, “ওই যুবক, আমি একই পাড়াতে থাকি। ওই যুবক দীর্ঘদিন ধরে আমার সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক তৈরী করতে চাইছিল। রাস্তাঘাটে আমাকে অনুসরণ করত। রবিবার বিকেলে আমি কাজ থেকে ফিরে স্নান করে ঘরে যখন জামা কাপড় পড়ছিলাম, তখন ও আমার ঘরে ঢুকে আমাকে জোর করে ধর্ষন করার চেষ্টা করে। আমি চিৎকার করলে পাড়ার লোকজন জড়ো হয়ে যায়। তারা ওই যুবককে ধরে ফেলে। আমি ওকে দুই চর মেরেছি। পরে ওই যুবক ফের হুমকি দেয় সে আমার ঘরের টালি খুলে ঘরে ঢুকে আমাকে ধর্ষন করবে। আমি নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছি। বাধ্য হয়ে আমি পুলিশের দ্বারস্থ হলাম। আমি চাই ওই যুবকের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি হোক।”

এদিকে অভিযুক্ত যুবক পাপাই জানিয়েছে, যেহেতু সে এলাকায় বিজেপি দল করে তাই তাকে ওই মহিলার সাহায্যে ষড়যন্ত্র করে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে শাসক দলের কর্মীরা।

যদিও স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছে, অভিযুক্ত যুবক ওই মহিলার ঘরে ঢুকেছিল, সেই কারনেই অভিযুক্তকে মারধর করেছে স্থানীয়রা। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বীজপুর থানার পুলিশ । অভিযুক্ত যুবককে জেরা করছে পুলিশ।