কলকাতা:  ইতিমধ্যে অসমে এনআরসি জারি করা হয়েছে। বাংলাতেও আগামীদিনে এনআরসি জারি করা হবে বলে ইতিমধ্যে হুশিয়ারি দিচ্ছেন বিজেপি নেতারা। যা নিয়ে তীব্র আতঙ্ক তৈরি হয়েছে বাংলাজুড়ে। অবস্থা এতটাই খারাপ এনআরসি আতঙ্কে রাজ্যে ইতিমধ্যে একজনের মৃত্যু পর্যন্ত ঘটেছে। এই অবস্থায় এনআরসি ইস্যুতে মুখ খুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আজ শুক্রবার নবান্নে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, গুজবে কান দেবেন না। আমি থাকতে কখনই এনআরসি হবে না বাংলায়। শুধুমাত্র এনআরসি’কে হাতিয়ার করা হচ্ছে। আর এভাবেই এনআরসি ইস্যুতে রাজ্যবাসীকে সতর্ক করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে ভোটার তালিকায় নামটা তুলে রাখার পরামর্শ দিয়েছেন রাজ্যের মানুষকে।

একদিকে বিজেপি নেতাদের হুঁশিয়ারি অন্যদিকে গুজব। যা নিয়ে গোটা রাজ্যে তীব্র আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। এই অবস্থায় মুখ্যমন্ত্রী বলেন, রাজ্যে ভোটার তালিকা সংশোধন ও ডিজিটাল রেশন কার্ড তৈরি নিয়ে মূলত গুজব ছড়িয়েছে। এর সঙ্গে নাগরিকপঞ্জীর কোনও যোগ নেই। তবে ভোটাধিকার মানুষের অধিকার। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, কিছু অপপ্রচার চলছে। বাংলায় এনআরসি নিয়ে দিল্লিতে কথা হয়নি।

রাজনৈতিক কারণে বাংলায় এনআরসি নিয়ে ভয় দেখাচ্ছে। উস্কানিমূলক কথা বলা। এতে মানুষের হৃদয়ে দুঃখ লাগছে বলেও মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রীর। আর এই অবস্থায় রাজ্যের মানুষকে মমতার আশ্বাস, বাংলার মানুষকে আশ্বাস করব, কোনও এনআরসি হবে না এখানে। এখানে ভয় পেয়ে, শরীর খারাপ করার কোনও কারণ নেই বলেই মন্তব্য করেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান। তাঁর মন্তব্য, আপনাদের কারও গায়ে হাত দিতে গেলে মমতার গায়ে হাত দিতে হবে। আপনাদের পাহারাদার ছিলাম, থাকব।

অন্যদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বাংলায় এনআরসি নিয়ে কোনও কথা হয়নি তা আরও একবার স্মরণ করে দেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর কথায়, এনআরসি-র জন্য বলতেই তো দিল্লি গেলাম। বিষয়টি দেখে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। তাই বলে এলাম দিল্লি গিয়ে।