স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারি কর্মচারী ফেডারেশনের সাংগঠনিক সমাবেশ থেকে সাংবাদিকদের জন্য বড় ঘোষণা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, সাংবাদিকদের চাকরি চলে গেলে তাদেরকে দশ হাজার টাকা করে দেওয়ার কথা ভাবছে সরকার।

যেসব সাংবাদিকরা ১০ হাজার টাকার নিচে বা উপরে বেতন পান তাদের জন্য একটি স্কিম করা হচ্ছে। দু’বছর সরকার থেকে ১০ হাজার টাকা করে দেওয়ার চিন্তাভাবনা রয়েছে। ইতিমধ্যেই অ্যাক্রিডিটেশন কমিটি এবং কলকাতা প্রেস ক্লাব কর্তৃপক্ষকে ডেকে একটি মিটিং করেছি।

শুক্রবার তিনি আরও বলেন, সাংবাদিকদের চাকরি চলে যাচ্ছে। তাদের ভবিষ্যত বলে কিছু নেই। ১০ হাজার টাকার পাশাপাশি কোনও সাংবাদিকদের মৃত্যু হলে সরকার পরিবারকে দুই লক্ষ টাকা দেবে। দুর্ঘটনা বা এমনি মারা গেলে পাবে ৫০ হাজার টাকা। তবে সমস্তটাই এখনও পর্যন্ত পরিকল্পনা স্তরেই রয়েছে।

এছাড়া এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারি কর্মীদের বেতন বৃদ্ধির কথাও ঘোষণা করলেন। জানুয়ারি মাস থেকেই এই বর্ধিত বেতন পাবেন কর্মীরা। এদিন সরকারি কর্মীদের সভায় মমতা জানান, ষষ্ঠ বেতন কমিশনের সব সুপারিশ মেনে নেওয়া হবে। রাজ্যের কর্মীদের ন্যূনতম বেসিক মাইনে বেড়ে হবে ১৭,৯৯০ টাকা। এছাড়া ৬ লক্ষ টাকা থেকে বেড়ে গ্র্যাচিউটি হল ১০ লক্ষ টাকা।

এদিন নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে তৃণমূলের রাজ্য সরকারি কর্মচারী সংগঠনের সভা ছিল। সেখানেই উপস্থিত ছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি জানান, ডিএ এবং বেতন কমিশন, আগে ১০০ টাকা বেসিক পে থাকলে ডিএ যুক্ত হলে কর্মীরা পেতেন ১২৫ টাকা। এরপর ডিএ ও পে কমিশন মার্জার হলে তখন এটা হবে ২৫৭। অর্থাত্ ১২৫ থেকে ২৫৭, এই হারেই বৃদ্ধি পাবে বেতন। ন্যূনতম বেসিক পে ৭০০০টাকা ছিল, সেটা বাড়িয়ে করা হয়েছে ১৭,৯৯০। সুপারিশ মানতে গেলে ১০ হাজার কোটি টাকার বেশি খরচ হবে বলেও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।