স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগ তুলে জেলা নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হল বহরমপুর জেলার কংগ্রেস নেতৃত্ব৷তাদের অভিযোগ, কোথাও বিদ্যুতের খুঁটিতে ঘাসফুলের পতাকা, কোথাও পূর্ত দফতরের রাস্তার মাঝে দিদি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কিংবা তাঁর ভাই শুভেন্দু অধিকারীর বিশাল বিশাল ছবি শোভা পাচ্ছে৷অথচ জেলা শাসক, পুলিশ সুপারকে জানিয়েও কোনও লাভ হচ্ছে না৷

নির্বাচন কমিশনের নিয়ম অনুযায়ী, সরকারি দেওয়ালে রাজনৈতিক দলের দেওয়াল লিখন চলবে না। সরকারি সম্পত্তিতে ব্যানার, পোস্টার লাগানো নিষেধ। একই ভাবে ব্যক্তিগত সম্পত্তিতেও মালিকের অনুমতি ছাড়া রাজনৈতিক দলগুলি দেওয়ালে লিখতে পারবে না। ব্যানার বা পোস্টারও লাগানো যাবে না।

বহরমপুর জেলার কংগ্রেস নেতৃত্বের অভিযোগ, জেলার বহু জায়গায় সরকারি সম্পত্তিতে রাজ্যের শাসক দলের পতাকা, ছবি লাগানো৷যা নির্বাচনী বিধিভঙ্গের মধ্যে পড়েছে। জেলা কংগ্রেসের এক নেতা বলেন, আমাদের পতাকা, ফ্লেক্স কোথাও লাগানো থাকলে সেগুলি খুলে দেওয়া হচ্ছে৷ অথচ আমরা এই ব্যাপারটা জেলা শাসক, পুলিশ সুপারকে একাধিকবার বলাতেও তৃণমূলের একটাও পতাকা, ফ্লেক্স, ব্যানার, হোর্ডিং কোনটাই খোলা হয়নি৷এবিষয়ে একাধিকবার জেলা কমিশনেও আমরা অভিযোগ জানিয়েছি৷ আজ আবার জানালাম৷ আসলে পুলিশ, তৃণমূলের গুন্ডা আর নির্বাচন কমিশন মিলেমিশে কাজ করছে৷ তাই এতবার অভিযোগ জানানোর পরও শাসক দলের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে না৷

বহরমপুরের কংগ্রেস প্রার্থী অধীর চৌধুরীর প্রতিক্রিয়া, এ আর নতুন কি! জেলাশাসক, পুলিশ সুপার সবাই দিদির অঙ্গুলিহেলনেই চলেন৷