স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: করোনা সংক্রমণের জেরে নবান্ন থেকে সরানো হচ্ছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দফতর। নবান্নের ঢিল ছোঁড়া দূরত্ব অ্যানেক্স ভবন ‘উপান্ন’তে সাময়িকভাবে মুখ্যমন্ত্রী দফতর স্থানান্তরিত হতে চলেছে। সবকিছু ঠিক থাকলে চলতি আগস্ট মাসের শেষে অথবা সেপ্টেম্বরের গোড়ায় উপান্ন থেকে কাজ শুরু করতে পারেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান।

ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা স্পেশাল সিকিউরিটি উইংয়ের আধিকারিকরা উপান্ন পরিদর্শন করেছেন। সূত্রের খবর, ঠিক হয়েছে, মুখ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে আধিকারিকদের যে টিম এই বিপর্যয় পর্বে নিরন্তর কাজ করে চলেছেন, করোনা আবহে তাঁরা ছাড়া আরও কারও প্রবেশাধিকার থাকবে না এই ভবনে।

গত ২২ জুলাই তিনতলার এই নতুন ভবনটির উদ্বোধন করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী।জানিয়েছিলেন, মুখ্যসচিব ছাড়াও মুখ্যমন্ত্রীর দফতরের (সিএমও) কয়েকজন আধিকারিকের দফতর থাকবে এখানে।

করোনা সংক্রমণ নবান্নের মূল প্রবেশদ্বার থেকে ১৪তলা পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়েছে। একের পর এক অফিসার, হাউসকিপিং স্টাফ এবং গাড়ির চালক করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। কিছুদিন আগেই নবান্নের চৌদ্দতলায় কর্মরত বেশকয়েকজন আমলার গাড়ির চালকের করোনা পজিটিভ আসে। ফলে মাঝেমধ্যেই রাজ্যের মূল সচিবালয় নবান্নের স্বাভাবিক কাজকর্ম বন্ধ রেখে পুরো বিল্ডিং স্যানিটাইজেশন করা হচ্ছে। এই সময় দৈনন্দিন প্রশাসনিক কাজ যাতে ব্যাহত না হয়, তার জন্য ‘উপান্ন’-তে দফতর সরানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

উল্লেখ্য, মুখ্যমন্ত্রীর গাড়ি পার্কিংয়ের ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। জানানো হয়েছে, মুখ্যমন্ত্রীর গাড়ির পাশে আর পার্ক করা যাবে না অন্য কোনও গাড়ি।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা