স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: দেশে করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে আম আদমির মনে এখন নানা প্রশ্ন দেখা দিচ্ছে। সেই কারণেই করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে সুস্পষ্ট নির্দেশিকা চাইলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

দেশে হু হু করে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরিসংখ্যান বলছে, ১০ রাজ্যেই ছড়িয়ে ৮০ শতাংশ করোনা আক্রান্ত। সেই তালিকায় নাম রয়েছে বাংলারও। মঙ্গলবার পশ্চিমববঙ্গ-সহ দশ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে ভিডিয়ো কনফারেন্স করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রধানমন্ত্রীকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘কোন ভ্যাকসিন সংগ্রহ করে ব্যবহার করা হবে, কেন্দ্রীয় সরকার তার সুস্পষ্ট নির্দেশিকা দিক।’

নরেন্দ্র মোদীর কাছে এদিন ফের করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্যে প্রাপ্য টাকার দাবিতে সরব হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘প্রাপ্য টাকা না পেলে কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াই করব কী করে?’

প্রধানমন্ত্রী ও প্রতিরক্ষমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের কাছে রাজ্যে বকেয়া মিটিয়ে দেওয়ার দাবি জানান। মমতার দেওয়া হিসেব অনুযায়ী, কেন্দ্রের কাছে জিএসটি বাবদ ৪ হাজার ১৩৫ কোটি টাকা বকেয়া রয়েছে। কোভিড পরিস্থিতি, আমফান মোকাবিলা-সব মিলিয়ে বকেয়া ৫৩ হাজার কোটি টাকা মিটিয়ে দেওয়ার দাবি জানিয়ছেন মমতা।

এদিনের বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ফের করোনা মোকাবিলায় রাজ্যের সদর্থক চেষ্টা ও সাফল্যের কথাও তুলে ধরেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রধানমন্ত্রীর কাছে মুখ্যমন্ত্রী দাবি জানান, ভেন্টিলেটর ও হাই পাওয়ার নেজাল ক্যানুলাস ডিভাইস অর্থাৎ যা দিয়ে রোগীর শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বাড়ানো যায়, তা কেন্দ্র সরবরাহ করুক।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা