কলকাতা: করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্ক বিশ্বজুড়ে। ভারতেও থাবা বসিয়েছে মারন করোনা। ভারতে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৪০০ ছাড়িয়েছে। করোনার করাল গ্রাস বাংলাতেও। পরিস্থিতি মোকাবিলায় সোমবার নবান্নে সর্বদল বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৈঠক শেষে টুইটে একজোটে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের আহ্বান মুখ্যমন্ত্রীর।

সোমবার রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনায় নবান্নে সর্বদল বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতাদের বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। দলমত নির্বিশেষে রাজনৈতিক দলগুলি করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় রাজ্য সরকারকে সবরকম সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী নিজেও এই অবস্থানকে সদর্থক বলে ব্যাখ্যা করেছেন।

এদিন সর্বদল বৈঠক শেষে টুইট করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। টুইটে মুখ্যমন্ত্রীর বার্তা, পশ্চিমবঙ্গ সরকার এই পরিস্থিতিতে রাজ্যবাসীকে সব রকম সুরক্ষা দিতে প্রস্তুত। সবার সম্মিলিত প্রয়াসেই মারণ করোনার মোকাবিলা সম্ভব। করোনার বিরুদ্ধে একজোটে লড়াই চাই।

এদিন নবান্নে সর্বদল বৈঠকে হাজির ছিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান, বামপন্থী দলের নেতা সুজন চক্রবর্তী সহ একাধিক বিরোধী দলের নেতারা। প্রত্যেকেই মোকাবিলা রাজ্যকে সব রকম সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন।

সোমবার বিকেল পাঁচটা থেকেই রাজ্যজুড়ে লকডাউন শুরু। সরকারি ও বেসরকারি সবরকম পরিবহন ব্যবস্থা বন্ধ রয়েছে। শুধুমাত্র চালু রয়েছে জরুরিকালীন পরিষেবা। করোনা মোকাবিলায় রাজ্যবাসীকে পাশে থাকতে আহ্বান জানিয়েছ কেন্দ্র-রাজ্য।

লকডাউন মেনে চলার জন্য রাজ্য সরকারকে নির্দেশিকা পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। লকডাউন সর্বোচ্চ ছয় মাসের জেল এর কথা বলা হয়েছে। একইসঙ্গে এক হাজার টাকা জরিমানা করা হবে। রাজ্যগুলিকে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্র।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প