নিউজ ডেস্ক: “আমার একটাই চিন্তা নরেন্দ্র মোদী ফের ক্ষমতায় এলে ভারতবর্ষে নির্বাচন থাকবে কিনা৷ কারোর নাম রাখতে চায় না৷ শুধু নিজের নাম ছড়িয়ে দিতে চায় সব জায়গায়৷’ দক্ষিণ ২৪ পরগণার সোনারপুরের জনসভায় দাঁড়িয়ে এমনই মন্তব্য তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের৷

স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গীতেই এদিন মোদী থেকে শাহ, মমতার আক্রমণের মুখে পড়লেন সবাই৷ তিনি এদিন বলেন সিবিআই থেকে আরবিআই সবই বিজেপির কথায় চলছে৷ যতদিন যাচ্ছে আচ্ছে দিন নিজের রূপ ধরছে৷

তাঁর অভিযোগ, নরেন্দ্র মোদী কাউকে কোনও কথা বলতে দেন না৷ তাঁর কথাই শেষ কথা৷ কেন হবে? উত্তর প্রদেশে একের পর এক মানুষ খুন হয়েছে৷ বিজেপি সরকারের আমলে গৃহহীন হয়েছেন অগুণতি মানুষ৷ ভিন রাজ্যের শ্রমিকদের খুন করা হচ্ছে৷

আরও পড়ুন : ভোট শেষে বিষ্ণুপুর লোকসভায় গুলি চালাল কেন্দ্রীয় বাহিনী, সঙ্গে লাঠিচার্জ

মমতা এদিন বলেন নরেন্দ্র মোদী অমিত শাহরা আবার ক্ষমতায় এলে দেশ আর থাকবে না৷ বিদ্বেষ, হিংসা ছড়িয়ে দিচ্ছে বিজেপি৷ বর্বরোচিত অত্যাচার চলছে দেশ জুড়ে৷ বিরোধীদের লাঞ্ছিত করা হচ্ছে৷

নোটবন্দির প্রসঙ্গ টেনে তৃণমূল নেত্রী বলেন আরবিআই সুপারিশ করেনি, তাও নোট বন্দি হয়ে গেল৷ দেশের মানুষকে সমস্যায় ফেলা ছাড়া আর কি করেছে বিজেপি? প্রশ্ন তোলেন মমতা৷

সাম্প্রদায়িকতা প্রসঙ্গে বিজেপিকে আক্রমণ করেন তিনি৷ বলেন “ধর্মের নামে এরা মিথ্যা কথা বলছে৷ ধর্মকে তাড়াতাড়ি বেচে দিচ্ছে, ধর্মের নাম করে ব্যবসা করছে, বিদ্বেষের প্রাচীর তুলছে৷ ৫ বছরে একটাও সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন মোদী? মিডিয়াকে কিনে নিয়ে নিজেদের প্রচার চলছে শুধু৷”