নিউজ ডেস্ক, কলকাতা: নকশালবাড়িতে দার্জিলিং আসনের প্রার্থী অমর সিং রাইয়ের সমর্থনে প্রচার করতে এসে ফের স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে মোদী সরকারকে তুলোধনা করলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

এদিন মমতা বলেন “দার্জিলিং বাংলার গর্বের৷ তাই স্থানীয় নেতাকেই প্রার্থী করেছে তৃণমূল৷ দিল্লি কা লাড্ডু চাই না৷ যে মানুষ আপনাদের সঙ্গে থাকবে, তাঁকেই প্রার্থী করেছি৷ কাজের মানুষ চাই, দিল্লিতে পালিয়ে যাওয়া মানুষ চাই না৷ পাহাড় সমতল এক৷ ঝগড়া চাই না৷ সবাইকে মিলেমিশে থাকতে হবে৷”

বন্ধ চা বাগানের সমস্যার কথা উঠে আসে মমতার বক্তব্যে৷ তিনি বলেন “বিজেপি সরকার আগের বার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতিতে বলেছিল সব চা বাগান খুলে দেব৷ কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি৷ ভোটের পর দিল্লি পালিয়ে গিয়েছে৷ কিন্তু কাজ করেছে একমাত্র তৃণমূল সরকার৷”

আরও পড়ুন : দলের ওপর অভিমান, স্পিকার থাকছেন না সুমিত্রা মহাজন

মমতা বলেন “মাটিগাড়ায় জিতেছে কংগ্রেস, ফাঁসিদেওয়াতেও কংগ্রেসের প্রার্থী জয়ী হয়েছেন৷ অন্যদিকে শিলিগুড়িতে জিতেছে সিপিএম৷ কিন্তু সেজন্য কাজ করা বন্ধ করে তৃণমূল৷ সব জায়গায় সমান ভাবে উন্নয়ন হয়েছে৷ কিষাণ মাণ্ডি থেকে পলিটেকনিক কলেজ, রাস্তা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়, বাগডোবরা বিমানবন্দর সংস্কার, চিড়িয়াখানা সংস্কার, শিলিগুড়িতে নতুন রাস্তা, উড়ালপুল করেছে তৃণমূল সরকার”৷

বিজেপিকে কটাক্ষ করে এদিন মমতার দাবি “আগের বার পাহাড়বাসীর কাছে গোর্খাল্যাণ্ড করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, হয়েছে? অল্প অল্প করে কাজ করেছে তৃণমূল৷ শিলিগুড়ি সাফারি পার্ক, জলপাইগুড়িতে নতুন সার্কিট বেঞ্চ গড়েছে এই রাজ্য সরকার৷ উত্তরবঙ্গের সঙ্গে নেপাল ভুটানকে জুড়েছে তৃণমূল সরকার৷ কারণ পাহাড় ভাল থাকলে সমতলও ভাল থাকে৷”

উল্লেখ্য এই নির্বাচনে তৃণমূলের সঙ্গে জোট বেঁধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা৷ সেই মোর্চা প্রার্থীর সমর্থনে এসে মমতা বলেন “৫ বছরে দেশকে লুঠেছে এক্সপায়ারি পিএম৷ মোদী আবার বলছেন বাংলায় কোনও উন্নয়ন হয়নি৷ অথচ দু টাকা কেজি চাল দিয়েছে তৃমমূল, চা বাগান শ্রমিক দের ভাতা দিয়েছে, পানীয় জলের ব্যবস্থা করেছে৷ রাজ্যের কন্যাশ্রী প্রকল্পের সুবিধা পাচ্ছে ৬০ লক্ষ মেয়ে৷”

আরও পড়ুন : সারদা’কে হাতিয়ার করেই অসমে বিজেপি’কে বিঁধলেন মমতা

কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে তুলোধনা করে মমতা বলেন “বিজেপি সব প্রকল্প বন্ধ করে দিয়েছে৷ তাও স্বাস্থ্যসাথী বানিয়েছে তৃণমূল৷ চালু করা হচ্ছে স্মার্ট কার্ড ফর স্বাস্থ্য সাথী৷”

মোদীর শ্লোগানকে কটাক্ষ করে তৃণমূল নেত্রী বলেন “এই চৌকিদার ঝুটা হ্যায়৷ আসল চৌকিদারকে সম্মান করি৷ চাবাগানের ভবিষ্যত সুরক্ষিত করবে তৃণমূল সরকার৷ কৃষকদের খাজনা মকুব করে দেওয়া হয়েছে৷ কৃষিজমি কেনাবেচার জন্য মিউটেশন ফিজ লাগে না৷ কিন্তু মোদীর আমলে বেকারত্ব বেড়েছে৷ রাজ্যে বিজেপির সাথে বোঝাপড়া রয়েছে কংগ্রেস-সিপিএমের৷ পঞ্চায়েত ভোটে জগাই মাধাই এক হয়েছে৷” সেই আঁতাতকে রুখতে তৃণমূল নির্বাচিত প্রার্থীকে জেতানোর ডাক দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷