স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: বুলবুলের প্রভাবে দক্ষিণবঙ্গে ক্ষয়ক্ষতির পর্যালোচনা করতে বৃহস্পতিবার নবান্নে প্রশাসনিক বৈঠক ডেকেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, ওই বৈঠকে উপস্থিত মন্ত্রী-আমলাদের সামনে মুখ্যমন্ত্রী ভর্ৎসনা করছেন তাঁর অত্যন্ত ঘনিষ্ট পূর্তমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসকে। একই ভাবে আইন দফতর ও পঞ্চায়েত দফতরের কাজকর্ম নিয়ে অসন্তোষ জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

জানা গিয়েছে এদিন, বৈঠকের শেষ দিকে পূর্ত দফতরের কাজের প্রসঙ্গ ওঠে। কার্শিয়ঙে একটি সার্কিট হাউজ রয়েছে। তা সত্ত্বেও পূ্র্ত দফতর সেখানে নতুন একটি সার্কিট হাউজ বানানোর জন্য দরপত্র ডেকেছে। তা নিয়েই মুখ্যমন্ত্রীর রোষের মুখে পড়েন পূর্তমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস।সূত্রের খবর, বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, এসব চলবে না। ওই সার্কিট হাউজ কি বিয়ে বাড়ির জন্য ভাড়া দেওয়া হবে? জানা গিয়েছে, এদিনের বৈঠকে পঞ্চায়েত দফতরের কাজ নিয়েও অসন্তোষ প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী। বহুদিন ধরেই এই দফতর সামলাচ্ছেন সুব্রত মুখোপাধ্যায়৷ বলে রাখি, মন্ত্রীসভার রিপোর্ট কার্ডে তিনি বরাবরই স্টার মার্কস পেয়ে পাস করেছেন৷ এদিন আইনমন্ত্রী মলয় ঘটকের কাজেও অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন মমতা৷ তাঁর উদ্দেশে বলেছেন, এতো মামলা জমে রয়েছে কেন? ব্যাপারটা দেখুন।

এদিনের বৈঠকের পর নতুন জল্পনা উস্কে দিয়েছে বাংলায় শাসক দলের অন্দরে। গত সপ্তাহ তিনেক ধরে তৃণমূলের মধ্যে জল্পনা চলছিল যে মন্ত্রিসভায় বড় রদবদল করতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী। এ দিনের বৈঠকের পর অনেকে মনে করছেন, তা হলে কি পূর্ত, পঞ্চায়েত, আইন দফতরে নতুন মুখ আনার কথা ভাবছেন মুখ্যমন্ত্রী? এ দিন কি তার ক্ষেত্র প্রস্তুত হল।

এদিন বৈঠকের পর প্রশাসনের উদ্দেশ্যে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ঝড় নিয়ে রাজনীতি করবেন না৷ সব দফতরকে নিয়ে মিলে কাজ করতে হবে৷ সবাই যেন ত্রাণ পায়, তা দেখতে হবে, বুলবুলে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ বিধ্বস্ত এলাকায় যাবে কেন্দ্রীয় দল৷ আর্থিক সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন৷ আমাদের সতর্কতার জেরে অনেক মৃত্যু এড়ানো গিয়েছে৷ ১৫ লক্ষ হেক্টর জমির চাষের ক্ষতি হয়েছে৷ দুর্গত এলাকায় পরীক্ষা পিছোন হয়েছে৷’ এরপরই ঝড় নিয়ে রাজনীতির অভিযোগ তুলে মমতা বলেন, ‘পাশে না-দাঁড়িয়ে অনেকে ভাঙচুর করছে৷ রাজনৈতিক বিতর্ক তৈরির চেষ্টা করছে৷ সব কিছু ভুলে সবাই মিলে কাজ করতে হবে এই সময়৷

পপ্রশ্ন অনেক: একাদশ পর্ব

লকডাউনে গৃহবন্দি শিশুরা। অভিভাবকদের জন্য টিপস দিচ্ছেন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ।