কলকাতা: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মুখোমুখি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। করোনা সংক্রমণ যখন বাড়ছে, তার মধ্যেই দেশের একাধিক মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

এদিন তিনি ১০ মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন মোদী।

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেই বৈঠকে নবান্ন থেকে রয়েছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বৈঠকে রয়েছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে, তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও, বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমার, পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং, গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপানি, তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী কে পলানিস্বামী, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ, অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী ওয়াই এস জগন মোহন রেড্ডি এবং কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরাপ্পা। এছাড়াও বৈঠকে আছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং।

সূত্রের খবর, বৈঠকে কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, মালদহ ও দুই পরগনার উপর বাড়তি জোর দেওয়া হতে পারে। ওই জেলাগুলির মৃত্যুর পরিসংখ্যান নিয়ে চিন্তায় আছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। পাশাপাশি করোনার সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করা হবে।

তবে সোমবারের হিসেব অনুযায়ী, বাংলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা কমেছে, বেড়েছে সুস্থাতর হার। সোমবার সন্ধের বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে ২৬ হাজারের বেশি টেস্ট হয়েছে৷ সোমবারের রাজ্য স্বাস্থ্য ভবনের বুলেটিনের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ২,৯০৫ জন৷ রবিবারের থেকে কম৷ সেদিন ছিল ২,৯৩৯ জন৷

তবে এই পর্যন্ত রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যাটা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৮ হাজার ৪৫৯ জনে৷ তবে অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা কমে ২৬ হাজার ৩১ জন৷ রবিবার সংখ্যাটা ছিল ২৬ হাজার ৩৭৫ জনে৷ একদিনে কমেছে ৩৪৪ জন৷ একদিনে বাংলায় মৃত্যু হয়েছে ৪১ জনের৷ রবিবারের বুলেটিনে মৃতের সংখ্যাটা ছিল ৫৪ জন৷ সেই তুলনায় সোমবার মৃতের সংখ্যাটা অনেক কম৷

তবে এই পর্যন্ত মোট মৃত্যু হয়েছে ২,১০০ জনের৷ গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছেন তিন হাজারের বেশি৷ সোমবারের তথ্য অনুযায়ী,একদিনে ৩,২০৮ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন৷ রবিবার এই সংখ্যাটা ছিল ১ হাজার ৯৯৬ জনে৷ ফলে এই পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭০ হাজার ৩২৮ জন৷ সুস্থ হয়ে উঠার হার বেড়ে হল ৭১.৪৩ শতাংশ৷ রবিবার ছিল ৭০.২৪ শতাংশ৷

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও